বিচিত্রতা

জেলের ভেতর আসামির গান ভাইরাল, ডাক পড়লো বলিউডে

জীবন বড় অদ্ভুত। তার পদে পদে অপেক্ষা করে চমক। কখনো কখনো সেই চমকের মাত্রা আকাশচুম্বীও হতে পারে। যেমনটি ঘটেছে কানহাইয়া কুমারের সঙ্গে। নেশা করে সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার অভিযোগে সম্প্রতি বিহারের পুলিশ আটক করেছিল তাকে। সেখানে জেলের ভেতরই আপনমনে গান ধরেছিলেন তিনি। সেই গান রাতারাতি ভাইরাল হয়। তার ফলে ডাক পড়েছে সরাসরি বলিউড থেকে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে জানা যায়, ২৪ বছরের যুবক কানহাইয়া কুমার বিহারের কৈমুর জেলার বাসিন্দা। গত সপ্তাহে প্রতিবেশী রাজ্য উত্তর প্রদেশের সীমান্ত থেকে প্রবেশের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করেছিল বক্সর থানা পুলিশ। ওই সময় কানহাইয়া নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ছিলেন বলে অভিযোগ।

এরপর বক্সরের সদর থানায় বন্দি ছিলেন এ যুবক। সেখানে জেলের ভেতরে বসেই গলায় সুর তোলেন কানহাইয়া। ভোজপুরী গায়ক পবন সিংহের একটি জনপ্রিয় গান উচ্চৈস্বরে গেয়ে ওঠেন। গানটি ছিলো ‘দারোগাজি হো, চার দিন পিয়বা ওয়া নাপাতা’। এর অর্থ হলো ‘স্বামী চার দিন ধরে নিখোঁজ’। গানটি বিহার-উত্তর প্রদেশে বিপুল জনপ্রিয় হলেও কানহাইয়াকে নিয়ে হইচইয়ের কারণ ভিন্ন।

মূলত যেভাবে খালি গলায় জেলের ভেতরে বসে গান গেয়েছেন, তাতেই মজেছেন নেটিজেনরা। শুধু তারাই না, গান শুনে মুগ্ধ ভারতের সঙ্গীত জগতের নামিদামি ব্যক্তিরাও।

দেওরিয়ার বিধায়ক ও উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সাবেক মিডিয়া পরামর্শক শলভমণি ত্রিপাঠী কানহাইয়ার ভিডিওটি টুইট করার পরপরই শোরগোল পড়ে যায়। তার সেই পোস্ট রিটুইট করে কানহাইয়াকে নিজের স্টুডিওতে গান গাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী অঙ্কিত তিওয়ারি।

‘আশিকি ২’ খ্যাত এ গায়ক টুইটারে বলেছেন, ‘কানহাইয়াকে আমার গানের কোম্পানিতে সুযোগ দিতে চাই।’ অঙ্কিতের মতে, আসক্তি সমাজের শত্রু এবং কেবল শিল্পই পারে এই অশুভকে পরাস্ত করতে।

জানা গেছে, কানহাইয়া কুমার বলিউডের পাশাপাশি উত্তর প্রদেশের একটি স্থানীয় সংগীত কোম্পানিতেও গান গাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। জরিমানা দিয়ে এরই মধ্যে জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন তিনি।

আইএ

Back to top button