বলিউড

২৯ বছরে মা হওয়া প্রসঙ্গে যা বললেন আলিয়া ভাট

মুম্বাই, ০৫ জানুয়ারি – সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট বলেন, মা হওয়ার প্রতিটা মুহূর্ত ভীষণ অর্থপূর্ণ। এই অভিনেত্রী বিশ্বাস করেন যে, যেকোনো সেক্টরে আপনি যদি কঠোর পরিশ্রম করেন তাহলে কাজ আপনার দরজায় এসে কড়া নাড়বে। আপনাকে কাজের পেছনে ছুটতে হবে না।

মাত্র ২৯ বছর বয়সে মা হয়েছেন আলিয়া ভাট। অভিনয় ক্যারিয়ারের শীর্ষে থেকে বিয়ে বা সন্তান নেওয়ার কথা ভাবতেই পারেন না অনেক নায়িকাই; তবে নিজের সিদ্ধান্ত দিয়ে সবাইকে একেবারে চমকেই দিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে আলিয়া জানিয়েছেন, জীবনের সব ক্ষেত্রেই তিনি আগে নিজের মন কী বলছে তা শোনেন। সেটা হোক কর্মক্ষেত্র বা ব্যক্তিগত জীবনে। অভিনেত্রী আরও জানান, এখনকার মতো এতো খুশি তিনি আগে কখনোই ছিলেন না।

২০২২ সালের ১৪ এপ্রিল বিয়ে করেন বলিউডের পাওয়ার কাপল রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট। পাঁচ বছর প্রেমের বিয়ের মাধ্যমে নতুন পরিণতি পায় তাদের সম্পর্ক। বলিউড সুপারস্টার রণবীরের মুম্বাইয়ের বাড়ি ‘বাস্তু’তেই বসেছিল বিয়ের আসর। বিয়ের দুই মাসের মাথায়ই সন্তান আসার খবর দেন এই দম্পতি।

বিয়ের কয়েক মাস পরেই সন্তান প্রসবের খবর জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট করেন আলিয়া। সিংহ, সিংহী ও শাবকের ছবির নিচে লেখা ছিল, ‘আমাদের জীবনের সেরা খবর। আমাদের সন্তান হয়েছে ও এক মায়াবী কন্যা। আমরা ভালোবাসায় পরিপূর্ণ, আশীর্বাদপ্রাপ্ত এবং আবেগী পিতা-মাতা! আলিয়া এবং রণবীরের পক্ষ থেকে রইল অনেক অনেক ভালোবাসা।

আলিয়া ভাট আরও বলেন, ‘জীবনে কোনো ভুল-সঠিক হয় না। আমার ক্ষেত্রে যা প্রযোজ্য তা অন্য কারও ক্ষেত্রে ভালো নাও হতো। আমি এমন একজন মানুষ যে সারাজীবন নিজের হৃদয়ের কথা শুনে এসেছি। আপনি নিজের জীবন নিয়ে সবকিছু পরিকল্পনামাফিক করতে পারবেন না। বরং জীবন নিজের পরিকল্পনায় আপনাকে চালাবে। সিনেমা হোক বা অন্য কিছু। আমি নিজের হৃদয়ের কথা শুনে সব সিদ্ধান্ত নিয়েছি সবসময়।

আইএ/ ০৫ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button