সাহিত্য

ঢাকা লিট ফেস্টের দশম আসর শুরু

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর শুরু হলো দেশি-বিদেশি কবি, সাহিত্যিক, চিন্তাবিদ ও লেখকদের মিলনমেলা ঢাকা লিট ফেস্ট-২০২৩। এবার ঢাকা লিট ফেস্টের দশম আয়োজন।

মহামারির কারণে দীর্ঘ তিন বছর বন্ধ ছিল এই উৎসব।
বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) সকালে বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে মনিপুরী, ক্লাসিক্যাল, রবীন্দ্র সংগীতের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হয় এবারের উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

ঢাকা লিট ফেস্ট ২০২৩-এর উদ্বোধন করেন নোবেল বিজয়ী সাহিত্যিক আবদুলরাজাক গুরনাহ, ভারতীয় লেখক ও সাহিত্য সমালোচক অমিতাভ ঘোষ, বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নুরুল হুদা।

নোবেল বিজয়ী সাহিত্যিক আবদুলরাজাক গুরনাহ

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নোবেল বিজয়ী সাহিত্যিক আবদুলরাজাক গুরনাহ বলেন, আমি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছি। আমি ধারণা করছি, এই আয়োজনের মাধ্যমে এমন কিছু দেখবো, যা আমি জীবনেও দেখিনি। আমি মনে করি এই আয়োজনের শুরুটা বেশ চমকপ্রদ ছিল।

ভারতীয় লেখক ও সাহিত্য সমালোচক অমিতাভ ঘোষ বলেন, এরকম একটা আয়োজনে এসে আমি সম্মানিত বোধ করছি। আমি কিন্তু একদিক দিয়ে বাংলাদেশি। আমার মায়ের বাড়ি গোপালগঞ্জ এবং বাবার বাড়ি বিক্রমপুর। আমি বাংলাদেশে বড় হয়েছি। আমি সব সময় বাংলাদেশের কথা বলি। বাংলাদেশের ভাষা খুব চমৎকার। বাংলাদেশ এবং বাংলা ভাষা দিনে দিনে আমার জীবনের অংশ হয়ে উঠেছে।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, এই আয়োজনের সঙ্গে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় যুক্ত ছিল। মহামারির কারণে এবার হয়তো একটু সম্পৃক্ততা কমেছে। আমি এই আয়োজনের সাফল্য কামনা করছি।

 

এ সময় ঢাকা লিট ফেস্টের তিন পরিচালক ড. কাজী আনিস আহমেদ, সাদাফ সায ও আহসান আকবার উপস্থিত ছিলেন। আয়োজকরা জানান, এবারের চার দিনের এই আয়োজনে থাকবে কথোপকথনের একটি বৈচিত্র্যময় মিশ্রণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সেশন, শিশু ও তরুণদের জন্য আকর্ষণীয় আয়োজন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, নাট্য, সংগীত এবং সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এবারের আয়োজন সাজানো হয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকে।

বৃহস্পতিবার সকাল নয়টায় শুরু হয় লিট ফেস্ট-২০২৩ এর আনুষ্ঠানিকতা। অতিথিদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে লিট ফেস্টের দুয়ার।

আইএ/ ০৫ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button