জানা-অজানা

জ্বালানি তেলের বড় দরপতন বিশ্ববাজারে

জ্বালানি তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। বিশ্বজুড়ে চাহিদা নিয়ে উদ্বেগ বাড়ায় জ্বালানি তেলের দাম নিম্নমুখী। কারণ বৈশ্বিক অর্থনীতিতে অনিশ্চয়তা ও চীনে করোনা শনাক্তের হার বাড়ায় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

বুধবার বিকেলের দিকে গেছে, ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ব্যারেলপ্রতি এক দশমিক ৮৮ বা দুই দশমিক তিন শতাংশ কমে ৮০ দশমিক ২২ ডলারে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে ইউএস ক্রুডের দাম ব্যারেলপ্রতি এক দশমিক ৬৮ অথবা দুই দশমিক দুই শতাংশ কমে ৭৫ দশমিক ২৫ ডলারে দাঁড়িয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার উভয় বেঞ্চমার্কের দাম চার শতাংশের বেশি কমে যায়, যা গত তিন মাসের মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ পতন।

পিভিএম তেল বিশ্লেষক স্টিফেন ব্রেনক বলেছেন, বিশ্ব অর্থনীতির অবস্থা সম্পর্কে উদ্বেগগুলো ব্যবসায়ীদের মনের সামনে ও কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। যা অদূর ভবিষ্যতেও থাকবে।

এদিকে চীনা সরকার ২০২৩ সালের প্রথম ব্যাচে পরিশোধিত তেল পণ্যের রপ্তানি কোটাও বাড়িয়েছে, যা দুর্বল অভ্যন্তরীণ চাহিদার ইঙ্গিত দেয়।

তাছাড়া শীর্ষ তেল রপ্তানিকারক সৌদি আরব ফেব্রুয়ারিতে এশিয়ায় তার ফ্ল্যাগশিপ আরব লাইট অপরিশোধিত গ্রেডের দাম আরও কমাতে পারে। এর আগে চলতি মাসের জন্য তারা মূল্য ১০ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নির্ধারণ করে।

আইএ/ ০৪ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button