দক্ষিণ এশিয়া

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে পাকিস্তানে রাত ৮টায় বন্ধ হবে মার্কেট

ইসলামাবাদ, ০৪ জানুয়ারি – ভয়াবহ মুদ্রাস্ফীতি ও জ্বালানি সংকটে ধুঁকছে পাকিস্তান। পরিস্থিতি মোকাবেলায় এবার কড়া পদক্ষেপ নিল পাকিস্তান সরকার। মঙ্গলবার ঘোষণা করা হল জ্বালানি সাশ্রয়ে মার্কেট, শপিং মল ও বিয়েবাড়ি আগেভাগে বন্ধ করে দেয়া হবে।

মঙ্গলবার পাকিস্তানের ক্যাবিনেট বৈঠকে এবিষয়ে জাতীয় শক্তি সংরক্ষণ পরিকল্পনা বা ন্যাশনাল এনার্জি কনজারভেশন প্ল্যানের অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে জানানো হয়, এবার থেকে আমদানি করা তেলের উপরে নির্ভরশীলতা কমাতে হবে।

বৈঠকে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী খাওয়াজা আসিফ বলেন, এবার থেকে রাত সাড়ে আটটায় মার্কেট ও শপিং মলগুলো বন্ধ করে দেয়া হবে। বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানও রাত ১০টার মধ্যে বন্ধ করে দিতে হবে। জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে আমাদের ৬০ বিলিয়ন রুপি (৬ হাজার কোটি) অর্থ সঞ্চয় হবে।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সঞ্চয় করতে মঙ্গলবার পাকিস্তান সরকারের নেয়া সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হল বাল্ব উৎপাদন বন্ধ করা। সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১ ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত বাল্ব উৎপাদন বন্ধ রাখা হবে। এতে ২২ বিলিয়ন সঞ্চয় হবে সরকারের।

এদিকে গ্যাসের ব্যবহার কমাতে বিকল্প হিসাবে কনিক্যাল গিজারের ব্যবহার করা হয়েছে এক বছরের জন্য। এই সিদ্ধান্তে সরকারের আরও ৯২ বিলিয়ন অর্থ সঞ্চয় হবে বলে জানানো হয়েছে। কমানো হবে স্ট্রিট লাইটের ব্যবহারও। এতে ৪ বিলিয়ন অর্থাৎ ৪০০ কোটি রুপি সঞ্চয় হবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আরও জানান, ন্যাশনাল এনার্জি কনজারভেশন প্ল্যানের অধীনে সমস্ত সরকারি বিল্ডিং ও অফিসগুলোতেও বিদ্যুতের ব্যবহার কমানো হবে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে সরকার নতুন নীতি আনবে যেখানে সমস্ত কর্মীদের ওয়ার্ক ফ্রম হোমের নির্দেশ দেয়া হবে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/০৪ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button