দক্ষিণ এশিয়া

যেসব দেশ থেকে ভারতে প্রবেশে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক

নয়াদিল্লি, ০৩ জানুয়ারি – বেশ কিছু দেশের ভ্রমণকারীদের জন্য নতুন ভ্রমণ নির্দেশনা জারি করেছে ভারতের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়েছে, ছয়টি দেশ ও অঞ্চলের ভ্রমণকারীদের জন্য ভারতে প্রবেশে করোনা নেগেটিভ সনদ থাকা বাধ্যতামূলক। গত ১ জানুয়ারি থেকেই কার্যকর হয়েছে এ নির্দেশনা।

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, চীন, সিঙ্গাপুর, হংকং, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড ও জাপান থেকে সবধরনের আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের ভারতে প্রবেশ করতে হলে করোনার আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় নেগেটিভ সনদ দেখানো বাধ্যতামূলক। যাত্রা শুরুর আগের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করাতে হবে এই পরীক্ষা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভ্রমণকারীরা যে দেশ থেকেই যাত্রা শুরু করুন না কেন, ওপরে উল্লেখিত ছয়টি দেশ ও অঞ্চলের মধ্য দিয়ে ট্রানজিট নিলে তাদের জন্যেও করোনা নেগেটিভ সনদ দেখানো বাধ্যতামূলক হবে। এটি ভারতের যেকোনো বিমানবন্দর দিয়ে প্রবেশের জন্যই প্রযোজ্য।

ওই ছয়টি দেশ ও অঞ্চলের যাত্রীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষার নেগেটিভ সনদ জমা দেওয়ার জন্য ভারতের বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ‘এয়ার সুবিধা’ পোর্টালটিকে এরই মধ্যে সক্রিয় করা হয়েছে।

এছাড়া, আগতদের মধ্যে দুই শতাংশ ভ্রমণকারীকে এলোপাতাড়ি নির্বাচনের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষা করানোও অব্যাহত থাকবে। ভারতে প্রবেশকারী বেশ কিছু আন্তর্জাতিক যাত্রী এরই মধ্যে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

খবরে বলা হয়েছে, ভারত ছাড়াও বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ চীনসহ করোনাভাইরাসের উচ্চ-ঝুঁকিপূর্ণ বিভিন্ন দেশ থেকে আগত আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য একই ধরনের ভ্রমণ নির্দেশনা জারি করেছে। ভারতে সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলোকে প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করতে এবং সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে যথাযথ করোনাবিধি বজায় রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ০৩ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button