শিক্ষা

বই উৎসবে পৃথিবীতে অনন্য দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ

গাজীপুর, ০১ জানুয়ারি – শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘নতুন বছরের প্রথম দিন দেশে একযোগে বই উৎসব পালিত হচ্ছে। এটা পৃথিবীতে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। যেখানে দেশের কোটি কোটি শিক্ষার্থী বই উৎসবে যোগ দিয়ে নতুন বই নিয়ে বাড়ি ফিরে যান। এই বই উৎসব সম্ভব হয়েছে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণে। আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যার কাছে কৃতজ্ঞ।’

আজ শনিবার বেলা ১১টায় গাজীপুরের কাপাসিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কেন্দ্রীয় বই উৎসবে উপস্থিত হলে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা গত ১৩ বছরে ৪৩৪ কোটি ৪৫ লাখ ৮০ হাজার ২১১ কপি বই বিনামূল্যে বিতরণ করেছি। এটা পৃথিবীর যেকোনো দেশের জন্য অচিন্তনীয় ব্যাপার। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বই উৎসবের কাজটি সফলতার সঙ্গে করা সম্ভব হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়ার হার যেমন আমরা রোধ করতে পেরেছি তেমনি অভিভাবকের উপর বই কেনার ভার আর থাকছে না।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতেৃত্বে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে পেরেছি। এখন প্রধানমন্ত্রী আমাদের স্বপ্ন দেখিয়েছেন স্মার্ট বাংলাদেশের। সেই স্মার্ট বাংলাদেশের নাগরিক হবে স্মার্ট নাগরিক, সরকার হবে স্মার্ট সরকার, অর্থনীতি হবে স্মার্ট অর্থনীতি, সমাজ হবে স্মার্ট সমাজ, এগুলো গড়তে যা দরকার তা হলো স্মার্ট শিক্ষা। সেটি আমরা বঙ্গবন্ধুর কন্যার নির্দেশনায় নতুন শিক্ষাক্রম তৈরির মাধ্যমে এগিয়ে চলেছি।’

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘আজকে ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির যে বইগুলো বিতরণ করা হয়েছে সেগুলো নতুন শিক্ষাক্রমের। নতুন শিক্ষাক্রমে আমরা আলোর পথ তৈরি করেছি। সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, বিশেষজ্ঞ, শিক্ষাবিদ সকলের পরামর্শ নিয়ে আমরা এমন শিক্ষাক্রম তৈরি করেছি যেখানে শিক্ষা হবে আনন্দময়, শিক্ষায় কোনো পরীক্ষা ভীতি থাকবে না। তবে পরীক্ষা থাকবে যা ধারাবাহিক মূল্যায়ানের একটি অংশ।’

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো.আবু বকর ছিদ্দিকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বই উৎসবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, গাজীপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের সভাপতিন্ডলীর সদস্য সিমিন হোসেন রিমি, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো.কামাল হোসেন, গাজীপুর জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানসহ আরও অনেকে।

আজ সকাল থেকে বই উৎসবে যোগ দেয় কাপাসিয়া উপজেলার বিভিন্ন স্কুলের হাজারো শিক্ষার্থী। সঙ্গে ছিলেন সংশ্লিষ্ট স্কুলের শিক্ষক। বেলা সাড়ে ১০টায় স্কুল মাঠে শিক্ষামন্ত্রী সবাইকে নিয়ে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন।

প্রসঙ্গত,গাজীপুর জেলায় প্রাথমিক পর্যায়ের ১ম থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত মোট ৬ লাখ ১২ হাজার ৩শ ৫১ জন শিক্ষার্থীর হাতে ২৫ লক্ষ ৪০ হাজার ২শ ৩৪টি পাঠ্যপুস্তক এবং মাধ্যমিক পর্যায়ের ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত মোট ৬ লাখ ৯২ হাজার ৭শ ৩০ জন শিক্ষার্থীদের হাতে মোট ৮৭ লাখ ৭৬ হাজার ৬ শ ৮৯টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয়েছে।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/০১ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button