পশ্চিমবঙ্গ

লোকসভার আগে পঞ্চায়েতে দৃশ্যমান হতে চায় বিজেপি

কলকাতা, ০১ জানুয়ারি – পঞ্চায়েত নির্বাচনে হার-জিত ভুলে দলকে দৃশ্যমান করার চ্যালেঞ্জ নিন, দলকে এমনই বার্তা দিলেন রাজ্য বিজেপির ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক সুনীল বনসল। সম্প্রতি এক দলীয় বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, পঞ্চায়েত নির্বাচন লড়তে হবে প্রধানত দলকে দৃশ্যমান করার জন্য। নিচু তলায় যাতে দলের পতাকা দেখা যায়, যাতে লোক বুথে যায়, প্রচার করে সেই লক্ষ্যেই পঞ্চায়েত নির্বাচনে লড়তে হবে।

তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, বিজেপির আসল লক্ষ্য লোকসভা নির্বাচন। সেই লক্ষ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ব্যবহার করতে হবে। পঞ্চায়েত নির্বাচনে গ্রামে গ্রামে বিজেপি মিছিল করলে, প্রচারপত্র বিলি করলে, বুথে গিয়ে বসলে, রাস্তায় পতাকা লাগালে মানুষের কাছে দল সম্পর্কে ‘ইতিবাচক’ বার্তা যাবে। যার সুফল মিলতে পারে লোকসভা নির্বাচনে।

বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব আগামী লোকসভা নির্বাচনে আরও বেশি আসন জিততে বদ্ধপরিকর। সেই লক্ষ্যে তাঁদের নজর বাংলা, ওড়িশা ও তেলঙ্গানার উপরে। বাংলায় তাঁরা ২৪টি আসনের লক্ষ্যমাত্রাও বেঁধে দিয়েছেন। এ কথা ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকদের মাধ্যমে বাংলার নেতাদের জানিয়েও দিয়েছে কেন্দ্রীয় বিজেপি।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে কার্যত দৈনিক যাতায়াত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কিন্তু তার পরেও রাজ্যে প্রত্যাশিত ফলাফল তো মেলেইনি, বরং, ২০০ আসনের লক্ষ্যমাত্রা থেকে অনেকটা দূরে আটকে গিয়েছিল গেরুয়া শিবির। এ বার ফের লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় ৩৮টি সভা করতে পারেন মোদী-শাহ ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নড্ডা।

সূত্রের খবর, সারা বছর মোদী বাংলায় ১৪টি সভা করতে পারেন। তিনটি করে লোকসভা নিয়ে একটি ক্লাস্টার তৈরি করা হবে। মোট ১৪টি ক্লাস্টারের প্রতিটিতে বছরের বিভিন্ন সময়ে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী। শাহ ও নড্ডা দু’জনেই ১২টি করে সভা করবেন বছরভর। সভার স্থান বাছাইয়ের ক্ষেত্রে জোর দেওয়া হবে হেরে যাওয়া লোকসভা কেন্দ্রগুলিকে। তার আগে সেই এলাকাগুলিতে সমীক্ষা চালিয়ে সাংগঠনিক সামর্থ্য বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করবেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকেরা। ইতিমধ্যে সেই কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।

সব কিছু ঠিক থাকলে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই রাজ্যে আসতে পারেন নড্ডা। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে ‘পাখির চোখ’ করে জানুয়ারি মাস থেকেই দেশজুড়ে প্রবাস কর্মসূচি শুরু করবে বিজেপি। সেখানে উপস্থিত থাকার মোদী, শাহ ও নড্ডার। তারই অংশ হিসেবে নড্ডার আসন্ন বঙ্গ সফর বলে জানা গিয়েছে। আগামী ৭ জানুয়ারি কলকাতায় আসার কথা তাঁর। সে দিনই পূর্ব মেদিনীপুরের চণ্ডীপুরে জনসভা করার কথা তাঁর। রাতে রাজারহাটের হোটেলে দলের কোর কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বসার কথা তাঁর। পর দিন জাতীয় গ্রন্থাগারের ভাষা ভবনে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করতে পারেন তিনি। এ ছাড়া, দিন তিনেকের সফরে যেতে পারেন কলকাতা লাগোয়া বেশ কিছু জেলায়। সূত্রের খবর, জেলা সফরে পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে রিপোর্ট নেবেন তিনি। কোথায় কতটুকু কাজ বাকি, কী করণীয়, সেই সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ নির্দেশ দিতে পারেন রাজ্যের নেতাদের।

সূত্র: আনন্দবাজার
এম ইউ/০১ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button