কুমিল্লা

ধাক্কা লেগে পড়েছে খাবার, ক্ষুব্ধ হয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা!

কুমিল্লা, ৩১ ডিসেম্বর – কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় একটি ওয়াজ মাহফিল চলাকালে পাশের একটি দোকানে এক ব্যক্তির শরীরে ধাক্কা লাগে এক তরুণের। এতে ওই ব্যক্তির হাতে থাকা ছোলা বুট মাটিতে পড়ে যায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে ওই তরুণকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার নিহত তরুণের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী। কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকায় এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে জানান তিনি।

নিহত ওই যুবকের নাম মো. ইয়াসিন মিয়া (১৯)। তিনি উপজেলার দুর্গাপুর এলাকার জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে। তবে ঘটনায় জড়িত ব্যক্তির নাম প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার দুর্গাপুরের পাশের এলাকা রামচন্দ্রপুরে শুক্রবার একটি ওয়াজ-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সেখানকার একটি দোকানে নাস্তা করতে যায় ইয়াসিন। দোকানে বসার সময় ইয়াসিনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এক যুবকের হাত থেকে ছোলা পড়ে যায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগ-বিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ওই যুবক ইয়াসিনকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করেন। রাত সোয়া ১০টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে ইয়াসিন মারা যান।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আমরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছি। নিহতের পরিবার এখনো মামলা দায়ের করেনি। তবে তারা আজকের মধ্যেই মামলা করবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন। হত্যার পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে কি না, সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
এম ইউ/৩১ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button