ফুটবল

মেসির অপেক্ষায় উদগ্রীব হয়ে আছেন এমবাপে

প্যারিস, ২৯ ডিসেম্বর – বিশ্বকাপ ফুটবলের জমজমাট ফাইনালে দু’জন ছিলেন প্রতিপক্ষ। একে অপরের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন বিশ্বকাপ ট্রফিটি জয় করার জন্য। বিশ্বকাপ শেষ এখন আবার তারা দু’জন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একই ক্লাবকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে লড়াই করতে মাঠে নামবেন। তারা দু’জন কিলিয়ান এমবাপে এবং লিওনেল মেসি।

বিশ্বকাপের বিরতি দিয়ে এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের স্থগিত থাকা মৌসুম। এরই মধ্যে মাঠে নেমেছে মেসি-এমবাপেদের ক্লাব পিএসজিও। তবে মেসিকে ছাড়া। বিশ্বকাপ বিজয় উদযাপন করার জন্য তিনি এখনও রয়েছেন ছুটিতে। নিজের বাড়ি আর্জেন্টিনার রোজারিওতে। তাকে ছাড়াই বুধবার রাতে স্ট্রসবার্গের বিপক্ষে মাঠে নেমে ২-১ গোলে জয় পেয়েছে পিএসজি। যে ম্যাচে গোল করেছেন এমবাপে এবং লাল কার্ড দেখেছেন নেইমার।

বছরের শেষদিন আবারও মাঠে নামবে পিএসজি। ওই ম্যাচেও খেলবেন না মেসি। কারণ, তখনও তিনি থাকবেন ছুটিতে; কিন্তু মেসির অনুপস্থিতি যেন বড় পীড়ার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এমবাপের জন্য। মেসির অপেক্ষায় উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপের ফাইনালের পর মেসির সঙ্গে কথা বলতে দেখা গিয়েছিল এমবাপেকে। সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ম্যাচ শেষ হওয়ার পর মেসিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলাম। সারা জীবনের সবচেয়ে বড় পুরস্কার পেল। আমারও সুযোগ ছিল; কিন্তু আমি ব্যর্থ হয়েছি। লিওর ফেরার জন্য অপেক্ষা করব। তার সঙ্গে নতুন জয় এবং নতুন লক্ষ্য স্থির করব।’

তবে ফাইনালে সেই হার যে মন থেকে মুছে ফেলতে পারবেন না, সেটা জানিয়ে দিয়েছেন এমবাপে। তিনি বলেন, ‘মনে হয় না এত সহজে ওই স্মৃতি থেকে মুক্তি পাব। কখনোই হয়তো সেটা সম্ভব হবে না। তবু ক্লাবের হয়ে খেলার জন্য ফিরে এসেছি। সতীর্থদের বলেছি, জাতীয় দলের হয়ে আমার যে ব্যর্থতা, তার ফল যাতে ক্লাবকে ভুগতে না হয় সেই চেষ্টাই করব। দুটো আলাদা জায়গা। মিলিয়ে ফেললে চলবে না। বিশ্বকাপে আমার ব্যর্থতার জন্য পিএসজি দায়ী ছিল না। নিজের সর্বশক্তি নিয়ে, ইতিবাচক মনোভাবের সঙ্গে ফিরতে চেয়েছিলাম। ফাইনালে যা হয়েছে সেটা কোনও ভাবেই বদলানো যাবে না। তাই প্রতি ম্যাচেই নিজের সেরাটা দিতে চাই।’

এমবাপে আরও বলেছেন, ‘বিশ্বকাপের সময়েও পিএসজি কোচের সঙ্গে রোজ কথা হয়েছে। আমাদের সেরা একাদশ কী হতে পারে সেটা নিয়ে আলোচনা করেছি। ফাইনালের আগেও কথা বলেছিলাম এবং তাকে কথা দিয়েছিলাম, ফলাফল যাই হোক না কেন, আমি দ্রুত ক্লাবের হয়ে ফিরব। ছুটি কাটাতে চাই না। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ রয়েছে সামনে।’

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button