ফুটবল

বাংলাদেশও ফুটবল বিশ্বকাপ জিতবে, প্রধানমন্ত্রীর আশাবাদ

ঢাকা, ২৯ ডিসেম্বর – আগামীতে বাংলাদেশ ফুটবল বিশ্বকাপ ছিনিয়ে আনবে আশাবাদ ব্যক্ত করে তরুণ খেলোয়াড়দের সেভাবে নিজেদের তৈরি করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’ এবং ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’ এর জাতীয় পর্যায়ে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আশা করি ধাপে ধাপে আমাদের খেলোয়াড়রাও একদিন- কিছুদিন আগে আমরা দেখলাম বিশ্বকাপ হয়ে গেল ফুটবলে। কিন্তু বাংলাদেশ জায়গা পায়নি। আমরা আশা করি আগামীতে ফুটবলে বাংলাদেশ অবশ্যই বিশ্বকাপে যোগদান করবে সেভাবে এখন থেকে নিজেদের তৈরি করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত খেলোয়াড়রা সেভাবে প্রস্তুতি নিবে কিনা এমন প্রশ্ন ছুড়ে দেন। খেলোয়াড়রা সেভাবে প্রস্তুতি নেবে বলে প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।

শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করেন বলেন, তোমরাই হবে আমার সেই গোল্ডেন বয়, আমরাও বিশ্বকাপ কাপ জয় করব।

খেলাধুলার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, খেলাধুলার মধ্য দিয়ে শরীরচর্চা হয়, মন ভালো থাকে, অন্যদিকেও আর মনোযোগ থাকবে না। খেলাধুলা যত বেশি চর্চা করা যাবে তত বেশি উৎকর্ষ সাধন হবে।

খেলোয়াড়দের আরও বেশি আন্তরিক হওয়ার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, আমি বলব খুব আন্তরিকতার সঙ্গে খেলতে হবে। আমি তোমাদের খেলা দেখলাম খুবই ভালো লাগলো। কিন্তু আগামীতে আরও ভালোভাবে তোমরা খেলবে। আরও বেশি ছেলেমেয়ে খেলাধুলায় যোগ দেবে সেটাই আমি আশা করি।

এ বছর ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’ এবং ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’- এই দুটি টুর্নামেন্টে উপজেলা, জেলা, বিভাগ এবং জাতীয় পর্যায়ে থেকে এক লাখ দশ হাজার পাঁচশো বাহান্ন জন খেলোয়াড় অংশ নিয়েছে জানান সরকার প্রধান।

এত বিপুল সংখ্যক খেলোয়াড় টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া বিষয়ে তিনি বলেন, অদ্ভুত একটা ঘটনা। বোধহয় পৃথিবীর ইতিহাসে আর কোনো দেশে এরকম ঘটনা নেই।

প্রধানমন্ত্রী জানান, এই টুর্নামেন্ট থেকে প্রতিভাবান ৪০ জন বালক এবং ৪০ জন বালিকাকে বিকেএসপিতে তিন মাসের জন্য নিবিড় প্রশিক্ষণ ক্যাম্প আয়োজন করা হবে।

তিনি বলেন, বিদেশে পাঠিয়েও ট্রেইনিংয়ের ব্যবস্থা আমরা নিচ্ছি, বিদেশে পাঠিয়েও আমরা ট্রেইনিং করাবো।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’ এ চ্যাম্পিয়ন হয় সিলেট বিভাগ এবং রানার্সআপ বরিশাল বিভাগ।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনুর্ধ্ব-১৭) ২০২২’ এ চ্যাম্পিয়ন হয় রংপুর বিভাগ এবং রানার্সআপ হয় খুলনা বিভাগ।

প্রধানমন্ত্রী খেলোয়াড়দের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। তাদের সঙ্গে ফটোসেশনে অংশ নেন।

সূত্র: বাংলানিউজ
আইএ/ ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button