যূক্তরাষ্ট্র

টেক্সাসে দুর্বৃত্তের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

ওয়াশিংটন, ২৯ ডিসেম্বর – যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন বাংলাদেশি যুবক আসিফ ইমরান (২৬)। টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের অরেঞ্জ শহরে লিংক অ্যাভিনিউর ২১০০ ব্লকে ২৪ ডিসেম্বর শনিবার ভোর রাতে নিজ বাড়ির ড্রাইভওয়েতে দুর্বৃত্তের এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহত হন আসিফ ইমরান। ২৬ ডিসেম্বর বিলম্বে এ খবর নিশ্চিত করেন টেক্সাসের বাসিন্দা নিহতের খালু ফেরদৌস বারী।

জানা যায়, শনিবার রাত ৩টা ৩৩ মিনিটে আসিফ নিজেই তার গাড়ি চালিয়ে অরেঞ্জ শহরে বাসার কাছে পৌঁছালে একদল দুর্বৃত্ত তার গাড়ি লক্ষ্য করে উপর্যুপরি গুলি চালায়। এতে গাড়ির ভেতরেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান আসিফ ইমরান। এর আগে একই এলাকা থেকে রাত ২টা ৪০ মিনিটে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা একটি কল্যাণ চেকের আদেশ পেলে জবাব দিতে ঘটনাস্থলে পোঁছে এ হত্যাকাণ্ডটি দেখতে পান। আসিফকে কেন গুলি করে হত্যা করা হয়েছে এ বিষয়টি এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যাওয়ার পর গাড়ির ভেতর ও বাইর থেকে ১৮টি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে পুলিশ। আসিফের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। আসামিদের ধরতে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের ধরিয়ে দিতে অরেঞ্জে পুলিশ ইতোমধ্যে পুরস্কারও ঘোষণা করেছে। ইমরানের খালু ফেরদৌস বারী জানান, আসিফ বাংলাদেশের বগুড়া শহরের নারুলী কৃষি ফার্ম এলাকার জাকির হোসেন নয়নের ছেলে। আসিফ ১১ বছর বয়সে তার বাবা-মায়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। সেখানে লেখাপড়া শেষ করে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করতেন। ফেরদৌস বারী আরও জানান, আসিফ ইমরানের বিয়ের জন্য পারিবারিকভাবে মেয়ে দেখা হচ্ছিল। কী কারণে আসিফকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে, সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি। আসিফ ইমরানের মরদেহ সেখানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। আইনিপ্রক্রিয়া শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হলে সেখানেই দাফন করা হবে।

সূত্র: ইউএসএনিউজ
আইএ/ ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button