পশ্চিমবঙ্গ

ফের একমঞ্চে দেখা যাবে মোদি-মমতাকে

কলকাতা, ২৭ ডিসেম্বর – বছর শেষে রাজ্য রাজনীতিতে চমক! ফের এক মঞ্চে উঠছেন মোদী-মমতা। একদিনের সফরে পশ্চিমবঙ্গে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আগামী শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) কলকাতায় আসবেন নরেন্দ্র মোদী। ওই দিন হাওড়া স্টেশন থেকে ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন করবেন তিনি। পাশপাশি জাতীয় গঙ্গা পরিষদের বৈঠকেও উপস্থিত থাকবেন। পরিষদের সদস্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীও। একারণে সেই বৈঠকে থাকবেন মমতাও।

প্রধানমন্ত্রীর ৩০ ডিসেম্বররের কলকাতার কর্মসূচির একটি তালিকা প্রকাশ হয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়েছে আগামী শুক্রবার সকালে কলকাতা বিমানবন্দরে নামবেন। সেখান থেকেই হেলিকপ্টারে পৌঁছাবেন কলকাতার রেসকোর্স ময়দানে। সেখান থেকে গাড়িতে করে যাবেন হাওড়া স্টেশন। এরপর সেখানে পশ্চিমবঙ্গে প্রথম ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ এর সূচনা হবে প্রধানমন্ত্রীর হাতেই।

প্রসঙ্গত, ভারতের দ্রুততম ট্রেন ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ চলবে হাওড়া থেকে নিউ জলপাইগুড়ি। এছাড়া এটিই ভারতের প্রথম ইঞ্জিনবিহীন ট্রেন। মূলত ভারতের দূরপাল্লার ট্রেনগুলিতে একটি পৃথক ইঞ্জিন কোচ জুড়ে তারপর সেগুলো চালানো হয়। কিন্তু বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন হলো বুলেট বা মেট্রো ট্রেনের মতো। আলাদা করে কোনো ইঞ্জিন কোচের দরকার পড়ে না। ঘণ্টায় গতি ১৮০ কিলোমিটার। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বন্দে ভারতের চালানো হবে ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার গতিতে। হাওড়া থেকে নিউ জলপাইগুড়ির রেলপথের দূরত্ব ৫৫৬ কিলোমিটার। এতোদিন এই রুটে সবচেয়ে দ্রুতগামী ট্রেন ছিল শতাব্দী এক্সপ্রেস। এই দূরত্ব অতিক্রম করতে শতাব্দীর সময় লাগে ৮ ঘণ্টা ২০ মিনিট। বন্দে ভারত সেই দূরত্ব কমিয়ে আনবে আরও ৫০-৫৫ মিনিটের মতো।

সেই ট্রেনের সূচনা পর্ব সেরে প্রধানমন্ত্রীর গন্তব্য হবে কলকাতার গার্ডেনরিচের ভারতীয় নৌসেনার পূর্বাঞ্চলীয় শাখায়। প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন জানানো হবে ভারতীয় নৌসেনার পক্ষ থেকে। সেখানে তিনি নেতাজির মূর্তিতে শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর নমামি গঙ্গে এবং একটি প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন। নমামি গঙ্গের কাজ কেমন চলছে তাও খতিয়ে দেখার কথা রয়েছে তার।

সেখান থেকে প্রধানমন্ত্রীর যাওয়ার কথা জাতীয় গঙ্গা পরিষদের বৈঠকে। যেখানে এক মঞ্চে ফের দেখা হবে মোদী-মমতার। শেষবার ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে উত্তরপ্রদেশের কানপুরে গঙ্গা পরিষদের বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী নিজেই ওই পরিষদের সভাপতিত্ব করেছিলেন। কিন্তু সেবার পশ্চিমবঙ্গ অংশ নেয়নি। যদিও এবার জানা যাচ্ছে, কলকাতার বৈঠকে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ, মোদীর এবারের সফর একেবারেই অ-রাজনৈতিক। তাই প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচিতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

অপরদিকে, বছর শুরুতেই জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ত্রিপুরা যাবেন তৃনমূল কংগ্রেস প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্র: বাংলানিউজ
আইএ/ ২৭ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button