ইউরোপ

ইউক্রেনের প্রায় ৯০ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন

কিয়েভ, ২৭ ডিসেম্বর – টানা দশ মাসেরও বেশি সময় ধরে ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে রাশিয়া। দীর্ঘ সময় ধরে এই যুদ্ধ চললেও সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইউক্রেনের বিদ্যুৎ-জ্বালানিসহ বেসামরিক অবকাঠামোকে লক্ষ্য করে রাশিয়ার হামলা বেড়েছে।

আর এতেই ব্যাপক বিদ্যুৎ সংকটে পড়েছে ইউক্রেন। এমনকি পূর্ব ইউরোপের এই দেশটির প্রায় ৯০ লাখ মানুষ বর্তমানে বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি নিজেই এই তথ্য সামনে এনেছেন। মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার হামলার জেরে সৃষ্ট বিদ্যুতের ঘাটতি অব্যাহত রয়েছে এবং বর্তমানে প্রায় ৯০ লাখ মানুষ বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

সোমবার রাতের ভিডিও ভাষণে তিনি বলেন, বারবার রাশিয়ান হামলার পরে গ্রিড মেরামতকারী বিদ্যুৎকর্মীরা ক্রিসমাসের সময় অনেক লোককে পুনরায় বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে পারলেও সমস্যাগুলো এখনও রয়েই গেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘স্বাভাবিকভাবেই, ঘাটতি বজায় রয়েছে। ব্ল্যাকআউট অব্যাহত রয়েছে। ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত পরিস্থিতি এমন যে, প্রায় ৯০ লাখ মানুষ বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে। তবে এই সংখ্যা এবং ব্ল্যাকআউটের সময়সীমা ধীরে ধীরে কমছে।’

সংবাদমাধ্যম বলছে, রাশিয়া সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ইউক্রেনে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বাড়িয়েছে। মূলত, ক্রিমিয়া উপদ্বীপের সাথে রাশিয়াকে সংযুক্তকারী ইউরোপের বৃহত্তম রেল ও সড়ক সেতুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার প্রতিশোধ হিসেবে গত ৮ অক্টোবর থেকে ইউক্রেনের জ্বালানি নেটওয়ার্ক ও অবকাঠামোগুলোতে আক্রমণ শুরু করে রাশিয়া।

এর মধ্যে গত মাসে অধিকৃত ক্রিমিয়া উপদ্বীপের বৃহত্তম বন্দরনগরী সেভাস্তোপলের কাছে কৃষ্ণ সাগরে রুশ নৌবহরে ড্রোন হামলার ঘটনা ঘটে। এরপর বেশ কয়েক দফায় ইউক্রেনের জ্বালানি স্থাপনা লক্ষ্য করে রাশিয়া কার্যত ক্ষেপণাস্ত্র বৃষ্টি চালায়।

মূলত সম্মুখসারির যুদ্ধে ব্যর্থতার পর রাশিয়ার সাম্প্রতিক এসব হামলা একটি বিস্তৃত কৌশলের অংশ এবং শীত শুরু হওয়ার সাথে সাথে ইউক্রেনে রুশ এই কৌশলের প্রভাব আরও তীব্রভাবে অনুভূত হতে শুরু করেছে।

সূত্র: ঢাকা পোস্ট
আইএ/ ২৭ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button