জাতীয়

চাঁদপুরের পাঁচ নেতা আ. লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে

চাঁদপুর, ২৫ ডিসেম্বর – আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে শনিবার (২৪ ডিসেম্বর)। সম্মেলনে বিভিন্ন পদে স্থান পেয়েছেন চাঁদপুর জেলার পাঁচ নেতা।

এর মধ্যে চাঁদপুর সদর উপজেলার বাসিন্দা দীপু মনি, সুজিত রায় নন্দী ও নজিবুল্লাহ হিরু। মতলব উত্তর উপজেলার মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এবং কচুয়া উপজেলার ড. সেলিম মাহমুদ।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি পদ লাভ করায় আনন্দিত ও উৎসাহিত হয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য। এর আগেও তিনি এই পদে ছিলেন। তিনি সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী এবং চাঁদপুর-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। এই আসন থেকে তিনি তিনবার এমপি নির্বাচিত হন। তার আগে তিনি অবিভক্ত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য ছিলেন।

চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ডা. দীপু মনি যুগ্ম সম্পাদক। এর আগেও তিনি একই পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনীত হন দীপু মনি। তিনি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি চাঁদপুর-৩ (সদর-হইমচর) আসনের সংসদ সদস্য। ২০০৮ সাল থেকে তিনি এই আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা সুজিত রায় নন্দী সাংগঠনিক সম্পাদক। এর আগে তিনি ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ছিলেন। ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সুজিত রায় নন্দী ২০০৩ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উপ কমিটির সহ-সম্পাদক, ২০০৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১২ সালে পুনরায় আবার কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন। ২০তম সম্মেলনে তিনি ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন।

কচুয়া উপজেলার পালাখাল মডেল ইউনিয়নের বাসিন্দা ড. সেলিম মাহমুদ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক। এর আগেও তিনি এই পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সাবেক শিক্ষক ও সহকারী প্রক্টর। ১৯৮৬ সালে ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে ছাত্র রাজনীতি শুরু করেন। তিনি চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসন থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী।

চাঁদপুর সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নের বাসিন্দা অ্যাডভোকেট নজিবুল্লাহ হিরু দ্বিতীয়বার আইন বিষয়ক সম্পাদক। এর আগে ২১তম জাতীয় সম্মেলনে অ্যাডভোকেট নজিবুল্লাহ হিরু আওয়ামী লীগের আগের কমিটির নির্বাহী সদস্য ছিলেন। তিনি পুরান ঢাকায় বসবাস করলেও সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নের বাখরপুর গ্রামের কৃতি সন্তান। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুব লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, জগন্নাথ কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি, ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

সূত্র: বাংলানিউজ
আইএ/ ২৫ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button