জাতীয়

পদ্মা সেতু চালুতে বিআইডাব্লিউটিসির আয় কমেছে ২৭ শতাংশ

ঢাকা, ২০ ডিসেম্বর – পদ্মা সেতু চালুর পর ২৭ শতাংশ আয় কমেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডাব্লিউটিসি)। এমতাবস্থায় আয় বাড়াতে ক্রুজ সার্ভিস চালুসহ নতুন কিছু উদ্যোগ নিয়েছে করপোরেশন। বিআইডাব্লিউটিসির পক্ষ থেকে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটিকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন সংসদীয় কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, বীর-উত্তম। বৈঠকে কমিটি সদস্য মো. মজাহারুল হক প্রধান, রণজিৎ কুমার রায়, মাহফুজুর রহমান, এম আব্দুল লতিফ ও এস এম শাহজাদা এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংসদীয় কমিটির কার্য বিবরণী থেকে জানা গেছে, কমিটির আগের বৈঠকে বিআইডাব্লিউটিসির কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয়। ওই আলোচনায় বিআইডাব্লিউটিসির চেয়ারম্যান শামীম আল রাজী জানান, পদ্মা সেতু চালুর ফলে করপোরেশনের ২৭ ভাগ আয় কমে গেছে। তিনি আরও জানান, বেশ কয়েকটি নতুন রুটে ফেরি চলাচলের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, যা বাস্তবায়নের জন্য কার্যক্রম চলমান আছে।

চলতি বছরের ২৫ জুন স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হয়। এই সেতু চালু হওয়ার ফলে ঢাকার সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে। সেতু চালু হওয়ায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটের ফেরি সার্ভিস বন্ধ হয়ে গেছে। পাশাপাশি পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে যান চলাচল উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। ফলে বিআইডাব্লিউটিসির আয়ে ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। করপোরেশনের আয় বাড়াতে ক্রুজ সার্ভিস চালু ছাড়াও কলকাতার সঙ্গে কনটেইনার সার্ভিস চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই সার্ভিস চালু করা সম্ভব হলে প্রতিদিন ১০ হাজার ডলার আয় করা সম্ভব হবে।

কমিটিকে জানানো হয়েছে, বিআইডাব্লিউটিএর নিয়ন্ত্রণাধীন নির্মিত এবং নির্মিতব্য ওয়াকওয়ে, ইকোপার্ক, ট্যুরিজম স্পট, ক্যান্টিন ইত্যাদি ইজারার মাধ্যমে রাজস্ব আদায় ও পরিচালনার সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য কমিটি গঠনের মাধ্যমে নীতিমালা প্রণয়ন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আন্ত মন্ত্রণালয়ের বৈঠকের মাধ্যমে ওই নীতিমালা চূড়ান্ত কার নির্দেশনা দিয়েছে সংসদীয় কমিটি।

বৈঠকে নদীর তীর রক্ষার্থে বেদখল জায়গা উদ্ধার করে বনায়নের পাশাপাশি মানুষ ও পশুপাখির কথা চিন্তা করে কোনো ধরনের বনজ ও ফলদ গাছ লাগানো উপযোগী, সে বিষয়ে বন বিভাগের পরামর্শ নেওয়ার জন্য বিআইডাব্লিউটিএকে বলা হয়েছে। এ ছাড়া বৈঠকে নদীতীরবর্তী জায়গা কেনাবেচার ক্ষেত্রে বিআইডব্লিউটিএর এনওসি গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ২০ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button