যূক্তরাষ্ট্র

নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো অনন্য আয়োজনে বাঙালির বড়দিন উদযাপন

নিউইয়র্ক, ২০ ডিসেম্বর – যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো উদযাপিত হয়েছে বাঙালির বড়দিন। সব ধর্মাম্বলী প্রবাসীরা মিলে খ্রিস্টানদের সবচেয়ে বড় এ উৎসবটি উদযাপন করেছে। ক্রিসমাস ডে’র প্রাক্কালে ওয়াই’স ম্যান ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক জ্যাকসন হাইটসের উদ্যোগে শনিবার উডসাইডের করপাস ক্রিস্টি চার্চে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল ড. মো. মনিরুল ইসলামসহ কমিউনিটির বিশিষ্টজন এবং ভারতসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা।

বিকেল সাড়ে তিনটায় সান্তাক্লজের আগমনের মাধ্যমে বাঙালির বড়দিনের অনন্য আয়োজনটি শুরু হয়। এরপর শিশুদের নিয়ে খেলা, ফ্যামিলি গেইম শো, ক্রিসমাস ম্যাস, ক্রিসমাস ক্যারল, পারস্পরিক সম্মিলন ও কেক কাটা পর্ব ছিল অনুষ্ঠানে। পরে সাংস্কৃতিক পর্ব ও নৈশভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়। এছাড়াও ক্রিসমাস ফটো-বুথ, শ্যাম্পেইন টোস্টিং-সহ নানা চমক ও মজাদার আয়োজনে বৈচিত্র্যপূর্ণ হয়ে ওঠে বাঙালির সার্বজনীন বড়দিন উৎসব।

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্বে নিউইয়র্কের কনসাল জেনারেল ড. মো. মনিরুল ইসলাম, বরেণ্য সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ, মনজুর আহমদ, মুহাম্মদ ফজলুর রহমান, নিনি ওয়াহেদ, হাসান ফেরদৌস, এটর্নী মঈন চৌধুরী, শিতাংশু গুহ, রতন তালুকদার, হোসনে আরা, ইব্রাহিম চৌধুরী খোকন, ওয়াই’স ম্যান ইন্টারন্যাশনাল ইউএসএ’র এরিয়া প্রেসিডেন্ট সাজু শ্যাম, নর্থ আটলান্টিক রিজিওনাল ডিরেক্টর করাশন ভার্গিস, ফ্লোরাল পার্ক ক্লাবের প্রেসিডেন্ট, জ্যাকব ভার্গিস, করপাস ক্রিস্টি চার্চের পাস্টর ফাদার জোনাস আচাকসো, করপাস ক্রিস্টি চার্চের পুরোহিত ফাদার মিন্টু রোজারিও, আহসান হাবিব ও আকাশ রহমান বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর অ্যালেন গমেজ, জেমস কোড়াইয়া, ডেনিস রোজারিও, ইলিয়াস রোজারিও, ম্যারিল্যান্ডের সুকুমার পিউরিফিকেশন, উৎসবের আহ্বায়ক সুখেন জোসেফ গমেজ, যুগ্ম আহ্বায়ক ফ্রান্সিস গমেজ ও জুড সিমন্ত পিউরিফিকেশন, সদস্য সচিব কর্নিলিয়াস ডি রোজারিও, প্রধান সমন্বয়কারী গোপাল সান্যাল, শিল্প নির্দেশনায় জাহেদ শরীফ, মিডিয়া কমিটির প্রধান আবদুল হামিদ, ববি রিবেরু, এলড্রিন ফ্রেজার, অ্যান্ড্রু বুলবুল গমেজ, ক্যানেকটিকাটের মিথিলা রোজারিও এবং সাংবাদিক হাসানুজ্জামান সাকী প্রমুখ।

ফ্যামিলি গেইম শো পরিচালনা করেন অভিনেতা ও টিভি উপস্থাপক খাইরুল ইসলাম পাখি, অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাদিয়া খন্দকার ও স্বাধীন মজুমদার। পরে সাংস্কৃতিক পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন মনিকা রায় চৌধুরী, ভিক্টর রোজারিও, ফিলিপস লিটন, চন্দ্রা কোড়াইয়া, ট্রিজা মৌসুমী ঘোষ, কল্পনা এগনেস পিউরিফিকেশন, শিখা কস্তা, লিনুস টলেন্টিনু, সুমন কস্তা, মুক্তা রোজারিও, পূর্ণিমা অ্যানি গমেজ, স্নিগ্ধা গমেজ, মেঘা পিউরিফিকেশন, সিনথিয়া স্মিতা গমেজ, তবলায় সঙ্গত করেন সুকুমার পিউরিফিকেশন ও মিথুন রোজারিও। অনুষ্ঠানে শিশুদের একটি নাটিকা পরিবেশিত হয়। “এবং তিনি মানুষ হলেন” নাটিকাটি গ্রন্থনা ও পরিকল্পনায় ছিলেন ফাদার মিন্টু রোজারিও। এতে শারীরিকভাবে চ্যালেঞ্জড স্বীকৃতি টলেন্টিনু মাতা মেরী চরিত্রে অভিনয় করেন।

অন্যান্যের মধ্যে অভিনয় করেন অ্যারন, অহনা, রিশান, এলাইসা, এলাইনা, রেইজেল, গুনগুন, গুনজন, এটম, আবৃত্তি, অ্যাড্রিয়ান, অধয়া প্রমুখ। সাংস্কৃতিক পর্বে গীতি নৃত্যনাট্য পরিবেশিত হয়। এতে পারফর্ম করেন শ্যারন কস্তা ও দিয়া কস্তা। এছাড়াও নাচ পরিবেশন করেন কুইন্স কলেজের ডান্স গ্রুপ।

এম ইউ/২০ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button