ফুটবল

মরক্কোর জার্সি বিক্রির হিড়িক

দোহা, ১৪ ডিসেম্বর – কাতার বিশ্বকাপে একের এক চমক সৃষ্টি করেছে মরক্কো। প্রথম আফ্রিকান হিসেবে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়ে নতুন ইতিহাস গড়েছে দলটি। মরক্কো প্রথম আরব দেশ হিসেবেও বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলছে তারা। তাদের এই সাফল্যে প্রশংসার বন্যা বয়ে যাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। শুধু তাই নয় মরক্কোর সাফল্যের হাওয়া লেগেছে কাতারের জার্সির বাজারেও।

বিশ্বকাপে মরক্কোর অভূতপূর্ব সাফল্য দোহার সোক ওয়াকিফের দোকানদারদের জন্য সুখবর বয়ে এনেছে। ওয়াকিফের প্রায় সব দোকানেই বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জনকারী ৩২টি দেশের পতাকা টাঙানো তো রয়েছেই। ওইসব দেশের পতাকা, জার্সি, শার্ট, স্কার্ফ, শাল, চাবির রিং, পতাকা সংবলিত সানগ্লাস, ব্রেসলেট ও ক্যাপসহ সবকিছুই বিক্রি হচ্ছে। এবার জানা গেলো সেখানে মরক্কোর জার্সি বিক্রির হিড়িক পড়েছে।

উত্তর আফ্রিকান দলের রেপ্লিকা শার্ট বিক্রি হচ্ছে এবং দিনে দিনে আরও চাহিদা বাড়ছে। টুর্নামেন্টের আগে থেকেই শহরের কেন্দ্রস্থলে আইকনিক মার্কেটের সরু গলিতে সারিবদ্ধ দোকানগুলোতে শোভা পাওয়া পণ্যগুলো আরও নতুন করে সাজানো হচ্ছে।

বিশ্বকাপের প্রথম কয়েক সপ্তাহে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল ও স্বাগতিক কাতার ছিল ফুটবল ভক্তদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় দল। এখন, মরক্কো, যারা বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ফ্রান্সের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে, তাদেরও সমর্থন বেড়েছে।

 

ব্যবসায়ী মুহাম্মদ সাদিক বলেন, গত নভেম্বর মাসে, আমরা অর্ডার করা কয়েক ডজন থেকে প্রতিদিন কয়েকটি মরক্কোর শার্ট বিক্রি করতাম। কিন্তু সম্প্রতি পর্তুগালকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথম আফ্রিকান ও প্রথম আরব সেমিফাইনালিস্ট হওয়ার কয়েক ঘন্টা পর বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ।

মরক্কো গ্রুপ পর্বে পয়েন্ট সংগ্রহ করা শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে দলটির জার্সিসহ অন্যান্য পণ্য চাহিদা আকাশচুম্বী হয়ে যায়। নকআউট পর্বে অ্যাটলাস লায়ন্স স্পেন ও পর্তুগালকে হারানোর পর চাহিদা আরও বেড়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রতিবার মরক্কো জিতলে, আমরা আরও কয়েকশ শার্টের অর্ডার দিতাম এবং পরের ম্যাচের দিন বিকেলের মধ্যে বিক্রি হয়ে যেত।’

দলটি সেমিফাইনালে যোগ্যতা অর্জনের পর থেকে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার ভক্ত দোহায় যেতে শুরু করেন। দোহায় পৌঁছানোর পর, তাদের প্রথম পা রাখা হয় সোক ওয়াকিফে। তাদের কেনাকাটার তালিকায় প্রথম আইটেমটি হয় একটি মরক্কোর জার্সি বা শার্ট বা পতাকা। আবার অনেক সময় দুটোই কেনেন মরক্কোর সমর্থকরা।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ১৪ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button