ইউরোপ

১০ বছরে প্রথমবার বড় সংবাদ সম্মেলন বাতিল করলেন পুতিন

মস্কো, ১৩ ডিসেম্বর – রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বছরের শেষ উপলক্ষে বড় একটি সংবাদ সম্মেলন বাতিল করেছেন। রুশ এই প্রেসিডেন্ট প্রতিবছরই বেশ ঘটা করে বাৎসরিক এই সংবাদ সম্মেলন করে থাকেন এবং এটিকে তার জন্য ঐতিহ্যবাহী ইভেন্ট বলে মনে করা হয়।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের বাসভবন ও কার্যালয় ক্রেমলিন সংবাদ সম্মেলন বাতিলের এই তথ্য সামনে এনেছে। সেখান থেকে বলা হয়েছে, গত ১০ বছরের মধ্যে এই প্রথমবার বছর শেষের এই সংবাদ সম্মেলন করবেন না পুতিন। মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

অবশ্য সংবাদ সম্মেলন বাতিলের কথা বলা হলেও ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, ‘আমরা আশা করি এরপরও গণমাধ্যমের সাথে কথা বলার সুযোগ খুঁজে নেবেন প্রেসিডেন্ট পুতিন।’

বিবিসি বলছে, ঐতিহ্যগতভাবে চলে আসা এই সংবাদ সম্মেলন বাতিলের কোনও কারণ জানানো হয়নি। তবে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট পুতিনের ইউক্রেন আক্রমণের সিদ্ধান্ত নিয়ে রাশিয়ানদের মধ্যে ক্রমবর্ধমান অস্বস্তির মধ্যে এটি বাতিলের ঘোষণা দেওয়া হলো।

মূলত ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে রাশিয়া বেশ বড়সড় প্রতিরোধের শিকার হয়েছে এবং অনেক সময়ই ব্যর্থতার মুখে পড়েছে।

এই পরিস্থিতিতে সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ। সেখানে তিনি বলেন, ‘(বছর শেষের) বড় সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে বলছি, হ্যাঁ, এটি নতুন বছরের আগে হবে না।’

তবে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট পুতিন মিডিয়ার সাথে কথা বলার একটি উপায় খুঁজে নিতে পারেন। পেসকভ জোর দিয়ে বলেন, ‘তিনি(পুতিন) নিয়মিত এটি করেন।’

বিবিসি বলছে, গত ১০ বছরে রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বেশ যত্ন সহকারে কোরিওগ্রাফ করে আয়োজিত বার্ষিক এই প্রেস কনফারেন্স কয়েক ডজন সাংবাদিক নিয়ে সাধারণত কয়েক ঘণ্টা ধরে চলে। এছাড়া এই সংবাদ সম্মেলনে রুশ ও বিদেশি, উভয় প্রকারের সাংবাদিকরাই উপস্থিত থাকতেন।

মূলত প্রেসিডেন্ট পুতিনকে রাশিয়ার জাতীয় টিভিতে সরাসরি সাধারণ রাশিয়ানদের সাথে সংশ্লিষ্ট একজন নেতা হিসাবে দেখা যায়, যিনি ধৈর্য সহকারে বিস্তৃত প্রশ্নের উত্তর দেন। সেখানে তাকে আঞ্চলিক সাংবাদিকদের প্রশ্নে প্রত্যন্ত গ্রামে দুর্বল রাস্তা ঠিক করা থেকে শুরু করে স্থানীয় কর্মকর্তাদের জনসমক্ষে তিরস্কার করা, বিশাল বৈশ্বিক ও ভূরাজনীতি নিয়ে নানা প্রশ্নের জবাব দেন পুতিন।

কিন্তু বেশ কিছু বিরোধী রাশিয়ান বিশেষজ্ঞ বলেছেন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতার অনুপস্থিতিতে এই ধরনের সংবাদ সম্মেলন কেবলই মঞ্চস্থ অনুষ্ঠানের অনুরূপ। যেখানে ক্রেমলিনপন্থি সাংবাদিকরা রাশিয়ার সর্বশক্তিমান এই শাসককে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চাটুকার প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করে থাকেন।

এসব বিশেষজ্ঞ বলছেন, এই ধরনের সংবাদ সম্মেলনে মুষ্টিমেয় স্বাধীন সাংবাদিকও উপস্থিত থাকতে পারেন তবে সবসময় তাদের প্রশ্ন করার সুযোগ দেওয়া হয়নি। যার ফলে এটি সামগ্রিক চিত্র পরিবর্তন করেনি।

তবুও এই জাতীয় সংবাদ সম্মেলনগুলো বিশ্বজুড়ে বহু রাজনীতিবিদ ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করে থাকেন।

সূত্র: ঢাকা পোস্ট
আইএ/ ১৩ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button