জাতীয়

কারাগারে আব্বাস-ফখরুল-রিজভী কোয়ারেন্টিনে

ঢাকা, ০৯ ডিসেম্বর – রাজধানীর পল্টন থানায় দায়েরকৃত মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও কেন্দ্রীয় নেতা মির্জা আব্বাসকে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়ার পর কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদসহ গ্রেফতার হওয়া নেতাকর্মীরাও কারাগারে আগে থেকেই কোয়ারেন্টিনে আছেন।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার পর দেশের সবকটি কারাগারের নতুন একটি নিয়ম অন্তর্ভুক্ত হয়। যার আওতায় নতুন আসামি কারাগারে এলে কোয়ারেন্টিনে থাকার বাধ্যবাধকতা সৃষ্টি করা হয়। এর আওতায় থেকে বাদ পড়েননি বিএনপির নেতারা। রিজভী ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সূর্যমুখী ভবনে কোয়ারেন্টিনে আছেন। এখন ফখরুল ও আব্বাসকেও সেখানে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে একটি সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করে। সূত্রটি জানায়, বিকেলে আদালতে তোলার পর ফখরুল ও আব্বাসকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন সংশ্লিষ্ট মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আদালত আবেদন আমলে নিয়ে বিএনপির এ দুই শীর্ষ নেতাকে কারাগারে পাঠান। নিয়ম অনুযায়ী সকল নতুন বন্দীদের সাত দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। ফখরুল-আব্বাসকেও সূর্যমুখী ভবনে আলাদা কক্ষে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

সূত্র আরও জানায়, সন্ধ্যা সোয়া ৬টার পর থেকে বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাস কারাগারে অবস্থান করছেন। এখনও তাদের ডিভিশনের নির্দেশনা আসেনি। এ সংক্রান্ত কাগজপত্র পেলে নিয়ম অনুযায়ী তাদের সূর্যমুখী ভবনে আলাদা কক্ষে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের (কেরানীগঞ্জ) জেলার মাহাবুবুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, কারাবিধি মোতাবেক নতুন বন্দিদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। তাই বিএনপির নেতাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তারা সাধারণ বন্দি হিসেবে আছেন।

সূত্র: বাংলানিউজ
আইএ/ ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button