জাতীয়

মিছিল-স্লোগানে সরব আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

ঢাকা, ০৯ ডিসেম্বর – ঢাকায় বিভিন্ন এলাকায় মিছিল আর স্লোগানে সরব ছিলেন বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। নগরজুড়ে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে বের হয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ও গলির মুখে দলবেঁধে অবস্থান নিতেও দেখা গেছে। জুমার নামাজের আগে নিজেদের এলাকার সড়কে মিছিল আর স্লোগানে সরব হতে দেখা যায় নেতাকর্মীদের।

বিএনপির সমাবেশের আগে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন তাদের শক্তির জানান দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল থেকেই পাড়া-মহল্লা গলিতে অবস্থান নিয়ে সতর্ক পাহারা বসাতে দেখা যায়।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জানা গেছে, বিএনপির ‘নাশকতা’ ঠেকাতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তারা জানান, ঢাকার বাইরেও নেতকর্মীরা সতর্ক রয়েছেন।

ঢাকার বিভিন্ন প্রবেশ মুখের আশপাশ এলাকাসহ যাত্রাবাড়ী, পল্টন, কল্যাণপুর, হাতিরপুল, জিগাতলা ও রাসেল স্কয়ার, ধানমণ্ডি, নিউমার্কেট, আজিমপুর, সদরঘাট, সুত্রাপুর, শনি আখরা, ধোলাইপাড়সহ অন্যান্য এলাকায় নেতাকর্মীদের মিছিলসহ দলবেঁধে অবস্থান করতে দেখা গেছে।

 

ঢাকা ৫ আসন এলাকার যাত্রাবাড়ী, শনির আখরা ধোলাইপাড় এলাকায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন বিভিন্ন পয়েন্টে নেতাকর্মীদের নিয়ে মিছিল ও মহড়া দেন দুপুর থেকে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের আহমেদ বলেন, আমাদের কমিটি এখনও হয়নি, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের নির্দেশে আমাদের নেতাকর্মীরা সব থানা ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা মোড়ে মোড়ে অবস্থান নিয়ে আছে। বিএনপি জামায়াতের লোকজন যে কোন ধরনের সহিংসতা করতে না পারে।

ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য জানান, দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাস ও আশপাশের এলাকা, সব কলেজ, জেলা, থানা ওয়ার্ড, মহানগর কমিটির নেতাকর্মীদের সতর্ক পাহারায় থাকার নির্দেশনা আমরা গতকালই দিয়েছি। আজকেও নেতাকর্মীরা সজাগ আছে, সতর্ক পাহারায় আছে।

সতর্ক অবস্থানের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান জানান, রাজনৈতিকভাবে বিএনপিকে মোকাবিলা করতে নেতাকর্মীরা দেশজুড়ে সতর্ক আছেন।

এদিকে, বিএনপির মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে শনিবার (১০ ডিসেম্বর) কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ও নৈরাজ্য করলে তার জবাব দেবে আওয়ামী লীগ। প্রয়োজনে হাত গুড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা।

 

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বিকেলে বিএনপি-জামায়াত, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নৈরাজ্য, অপরাজনীতি ও অব্যাহত দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা এসব কথা বলেন।

অপরদিকে, দেশব্যাপী বিএনপির সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও পুলিশের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী ছাত্রলীগের অবরোধের কারণে সড়কের দুই পাশে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন মহাসড়কে এ অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের শত শত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button