অপরাধ

হানিফের বাসায় ছিল ৪০০ ভরি স্বর্ণ এবং মদ, অবশেষে ধরা

ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর – ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবিপ্রধান) মো. হারুন অর রশীদ বলেছেন, দেশবিরোধী অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ডে অর্থের জোগানদাতা হানিফ নামে এক ব্যক্তিকে রাজধানী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একটি রাজনৈতিক দলেও নিয়মিত অর্থায়ন করেন বলে দাবি গোয়েন্দা পুলিশের এ কর্মকর্তার। সম্প্রতি সময় সংবাদকে এসব তথ্য জানান তিনি।

হানিফ নামে ওই ব্যক্তির বাসায় অভিযানে ৪০০ ভরি স্বর্ণ এবং ৩৩ বোতল বিদেশি মদ পাওয়ার কথা জানিয়েছে ডিবি। পুলিশ বলছে, তার বিরুদ্ধে হুন্ডি ব্যবসায়ে জড়িত থাকার প্রমাণও পাওয়া গেছে। সারা দেশের পাশাপাশি রাজধানীজুড়ে চলছে ১৫ দিনের পুলিশের বিশেষ অভিযান। এ অভিযান মূলত অবৈধ অস্ত্রধারী, চোরাকারবারি, মাদক কারবারি এবং ওয়ারেন্টভুক্ত বিভিন্ন মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে। এ অভিযানের অংশ হিসেবেই গোপন তথ্যে রাজধানীর একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে গোয়েন্দা পুলিশ উদ্ধার করেছে স্বর্ণসহ মাদক। পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন,অভিযুক্ত এ ব্যক্তি হুন্ডির ব্যবসার পাশাপাশি তার বাসাটি মিনি বার হিসেবে ব্যবহার করতেন। গ্রেফতার করা হয়েছে হানিফকে।

ডিবিপ্রধান বলেন, অভিযুক্ত হানিফ একটি রাজনৈতিক দলের নিয়মিত অর্থের জোগানদাতাও বিভিন্ন রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে অর্থের জোগানদাতা হিসেবে তথ্য পেয়েছে গোয়েন্দারা।

মো. হারুন অর রশীদ আরও বলেন, দেশবিরোধী অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ডে নিয়মিত অর্থের জোগান দিচ্ছে, বাসায় স্বর্ণ মজুত করছেন। বাসায় মদ রাখার সপক্ষে কোনো কাগজ দেখাতে পারেননি তিনি। বাসায় মিনিবার বানিয়ে তারা মদ পান করেন, কিন্তু কোনো অনুমতি ছাড়া। আমাদের বলেছেন তিনি সিঙ্গাপুর এবং দুবাই থেকে কর ফাঁকি দিয়ে এসব স্বর্ণ এনে মজুত করেছেন। যখন সোনার দাম বৃদ্ধি পায় তখন সে বিক্রি করে। মূলত অবৈধ মুনাফা অর্জন করে এভাবে সে।

বিশেষ ক্ষমতা ও মাদক আইনে হানিফের বিরুদ্ধে দুটি আলাদা মামলা করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, ১৫ দিনের এ অভিযানে অনেক হুন্ডি ব্যবসায়ী, মাদক কারবারি রয়েছে নজরদারিতে।

সূত্র: সময় টিভি
আইএ/ ৫ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button