ঢালিউড

শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্কের সব কথা খোলামেলা জানালেন বুবলী

ঢাকা, ০৪ ডিসেম্বর – শাকিব-বুবলী-অপু বিশ্বাসের ভার্চুয়াল লড়াই শেষ হতে না হতেই এবার ফেসবুকে ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন বুবলী। আজ (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বুবলী তার ফেসবুক ভিডিওতে সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন। আধাঘণ্টারও বেশি সময়ের ভিডিওতে তিনি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলতে গিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। এমনকি কথা বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন বুবলী। তার এ ভিডিওতে সাংবাদিক, ভক্ত-অনুরাগীদের জানিয়েছেন অনেক না বলা ও অজানা কথা।

বেবি বাম্প দিয়ে শুরু, পরে শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের খবর, সন্তান শেহজাদ খান বীরকে সামনে আনা, বিয়ের তারিখ জানানো, সন্তানের জন্মতারিখ প্রকাশ করেন অভিনেত্রী বুবলী।

কিন্তু আরও অনেক প্রশ্ন পিছু ছাড়ছিল না বুবলীর। এর সঙ্গে যুক্ত হচ্ছিল সমালোচনা। তিনি শাকিব খানের সঙ্গে তার নিজের, নায়িকা অপু বিশ্বাসের সম্পর্ক ও সন্তানের বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন।

 

ক্যারিয়ারের প্রথম পর্যায়ের কথা টেনে বুবলী বলেন, ‘আমি ২০১৬ থেকে কাজ করছি। শাকিব খান, যিনি আমার সন্তানের বাবা, আমার স্বামী, তার সঙ্গে আমি কাজ শুরু করি বা সুযোগ পাই। উনি আমাকে মেন্টর হিসেবে গাইড করতেন। ওনার মাধ্যমেই আমার ফিল্মে আসা। ওই সময় আমি কেন, পুরো বাংলাদেশের কেউ কি জানতেন ওনার আগের কোনো সম্পর্ক নিয়ে? এটা কিন্তু আমরা কেউই জানতাম না।

এমনটা করিনি। সবসময় ওর জন্য ভালোবাসা, দোয়া দিয়ে এসেছি। আমিও তো একটা মানুষ, আমার তো কষ্ট থাকতে পারে। আমি তো শুধু বেবি বাম্পের ছবি দিয়েছি। কাউকে দোষারোপ করেও তো কিছু বলিনি। শুধু নিজের আবেগের জায়গা থেকে একটা বিষয় শেয়ার করেছি।

ভিডিওর একদম শেষের অংশে বুবলী বলেন, কিছু জিনিস শেয়ার করেছি আমার সন্তানের জন্য। ও তো বড় হচ্ছে এবং আপনারা অনেক সময় ওকেও বিভিন্ন বিষয়ে ইনভলব করেন। ওর কোনো দোষ নেই, ও তো ছোট মানুষ। ওর তো তিন বছর প্রায়। আমরা চেয়েছিলাম যে, আমরা একসঙ্গে খুব সুন্দরভাবে ওকে সামনে আনার, হয়তো হচ্ছিল না কোনোভাবে। আমি তো অলরেডি তিন বছর ওয়েট করেছি। ওর বিষয়টা সামনে আনার পরেও কিন্তু আমি কারো বিষয়ে কোনো অভিযোগ করিনি, আজও করছি না। না হলে ও হয়তো কখনো কোনো সময় প্রশ্ন করবে, মা তুমি তো কোনো কথা বলোনি কখনো।’

সন্তান সেহজাদের উদ্দেশে বুবলী বলেন, বাবা শেহজাদ, মা হয়ে তোমার পাশে সারা জীবন থাকব না বাবা। কিন্তু অন্যান্য মায়ের মতো তোমার জন্য অনেক কষ্ট করেছি এবং করছি। তোমাকে পৃথিবীতে আনা, তোমাকে বড় করা। আমি সব সময় তোমার পাশে ছিলাম, আছি, থাকব। তুমি মানুষের মতো মানুষ হও বাবা এবং একটি কথা মনে রেখ, তোমার মা-বাবা তোমাকে অনেক ভালোবাসে। আমি হয়তো আমার জায়গা থেকে সব সময় তোমাকে সেরাটা দিতে পারি না। তোমাকে অনেক ভালোবাসি।

আইএ/ ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button