জাতীয়

বিএনপি আবারও জ্বালাও-পোড়াও করতে চায়

ঢাকা, ০২ ডিসেম্বর – বিএনপি ২০১৪-১৫ সালের মতো লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দিয়ে দেশে আবারও জ্বালাও-পোড়াও করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

বৃহস্পতিবার তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক ভিডিওতে আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানীতে বিএনপি সমাবেশ নিয়ে এ মন্তব্য করেন।

রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশ নিয়ে তিনি বলেন, ১০ ডিসেম্বর মহাসমাবেশের নামে কী পরিকল্পনা করছে বিএনপি। বিএনপি সারাদেশে বিভাগীয় সমাবেশ করেছে বিভিন্ন মাঠে। কিন্তু ঢাকার সমাবেশে তারা বেছে নিয়েছেন নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ের সামনের রাস্তা। বাংলাদেশ ব্যাংক মোড় থেকে কাকরাইল মোড় পর্যন্ত সমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছে বিএনপি। ঢাকাবাসীর চলাচলের ভোগান্তির কথা চিন্তা করেই যা নাকচ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ। তাদের উদ্দেশ্য কি? রাস্তা মাঠের তুলনায় অনেক সরু হওয়ায় কম লোক এনেও অনেক বেশি লোকের সমাগম বলে ভিডিও চালানো যাবে। লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দিয়ে দেশে আবার জ্বালাও-পোড়াও করতে চায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, দলীয় কর্মীদের নিয়ে রাস্তায় বসে আর না ওঠার পরিকল্পনা নিয়েছে বিএনপি। ২০১৪-১৫ এর মতো লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দিয়ে দেশে আবার জ্বালাও-পোড়াও করতে চায়। অথচ পুলিশ থেকে তাদের প্রস্তাব করা হয়েছে-যেহেতু বড় জমায়েত করতে চাই বিএনপি তাই সোহরাওয়ার্দী মাস তাদের জন্য ভালো হবে। একইসঙ্গে ঢাকা শহরের যানজট থেকে মুক্তি পাবেন নগরবাসী। কিন্তু বিএনপিকে সমাবেশের জন্য বড় মাঠের ব্যবস্থা করে দিতে চাইলেও তারা সেই প্রস্তাবে রাজি না।

এখন জনমনে প্রশ্ন কি চায় বিএনপি? সমাবেশ করতে নাকি সমাবেশের নামে নৈরাজ্যকর পরিবেশ সৃষ্টি করতে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ব্যস্ত রাস্তা বন্ধ করে জনগণকে দুর্ভোগ ও অনিশ্চয়তায় ফেলে বাংলাদেশের অজনপ্রিয় দল বিএনপির রাজনীতি বন্ধ হোক।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ০২ ডিসেম্বর ২০২২

Back to top button