ফুটবল

আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ডের নকআউটে ওঠার লড়াই আজ

দোহা, ৩০ নভেম্বর – বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে কঠিন সমীকরণের এক লড়াই মাঠে গড়াচ্ছে আজ (বুধবার)। ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে লাতিন পরাশক্তি আর্জেন্টিনা আর ইউরোপের পোল্যান্ড। দুই দলের জন্যই এই ম্যাচটি নকআউটে জায়গা করে নেওয়ার। স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু হবে মহাগুরুত্বপূর্ণ এই লড়াই।

এই ম্যাচের জয়-পরাজয়ের ওপর গ্রুপের হিসেব-নিকেশ নির্ভর করছে অনেকটাই। সহজ করে বললে, যে দল এই ম্যাচে জিতবে তারা জায়গা করে নেবে নকআউটে। কিন্তু যদি ড্র হয়? ড্র করলেও পোল্যান্ড দ্বিতীয়পর্বে চলে যাবে, বিপদ বাড়বে আর্জেন্টিনার।

প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের কাছে ২-১ গোলে হেরে নিজেদের অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিয়েছে আর্জেন্টিনা। এই গ্রুপে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে পোল্যান্ড।

পোল্যান্ড যদি আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে দেয় এবং মেক্সিকো-সৌদি আরবের ম্যাচে যদি ফল হয়, তাহলে আর্জেন্টিনার বিদায় ঘটবে। আর যদি পোল্যান্ডকে হারিয়ে দিতে পারে মেসিরা, তাহলে তারাই উঠবে শেষ ষোলোয়। ম্যাচ ড্র হলে পোল্যান্ডের শেষ ষোলো নিশ্চিত হবে এবং সৌদি-মেক্সিকো ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে আলবিসেলেস্তেদের।

একই সময়ে (রাত একটায়) সৌদি আরবের মুখোমুখি হবে মেক্সিকো। ৩ পয়েন্ট পাওয়া সৌদি যদি মেক্সিকোকে হারাতে পারে, তাহলে তারা উঠে যাবে নকআউটে। পোল্যান্ড জিতলে বা ড্র করলেও সৌদির সঙ্গে তারাও উঠবে। ফলে ড্র করে আর্জেন্টিনার ওঠার সম্ভাবনা খুব কম, তবে জিতলে আর কোনো সমীকরণ দরকার পড়বে না মেসিদের।

এখন দেখা যাক, দুই দলের ইতিহাস কী বলছে। এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে ১১ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে আর্জেন্টিনা ও পোল্যান্ড। যেখানে ৬ ম্যাচে জয় আর্জেন্টিনার, পোলিশরা জিতেছে ৩টিতে। বাকি দুটি ড্র।

১৯৬৬ সালে প্রথম দেখা হয় আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ডের। সবশেষ সাক্ষাৎ ২০১১ সালে, শেষের এই প্রীতি ম্যাচে ২-১ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা।

বিশ্বকাপে অবশ্য গত ৪৪ বছরে দেখা হয়নি দুই দলের। আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ড বিশ্ব আসরে পরস্পরের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ খেলেছে, একটি করে জয় দুই দলের। ১৯৭৪ আসরে ৩-২ গোলে জিতেছিল পোল্যান্ড। চার বছর পর ২-০ গোলে জেতে আর্জেন্টিনা।

লিওনেল স্কালোনির দলকে এবার অবশ্য বড় পরীক্ষাই দিতে হবে। বিশ্বকাপে সবশেষ তিন ম্যাচে একটি গোলও হজম করেনি পোল্যান্ড। এর মধ্যে চলতি কাতার বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের ২৭টি শট (৯টি অন টার্গেট) ফিরিয়ে জাল অক্ষত রেখেছে পোলিশরা।

১৯৮৬ সালের পর এবারই প্রথমবার গ্রুপপর্ব টপকে দ্বিতীয়পর্বে যাওয়ার হাতছানি পোল্যান্ডের সামনে। সেই সুযোগটা কি এত সহজে হাতছাড়া করতে চাইবেন লেভানদোভস্কিরা?

লিওনেল মেসির দলও অবশ্য সব ম্যাচকে ফাইনাল ধরেই এগোচ্ছে। মেক্সিকোর বিপক্ষে জয়ের পর মেসি বলেন, ‘আমাদের আরেকটি বিশ্বকাপ শুরু হলো। আমরা আর ভুল করতে চাই না।’

পোল্যান্ড ম্যাচটিকেও তাই ফাইনালের মতো গুরুত্ব দিয়েই খেলবেন মেসিরা। আরেকটি ভুল যে তাদের ছিটকে দিতে পারে বিশ্বকাপ থেকেই? মেসির শেষ বিশ্বকাপটা কি এত সহজেই শেষ হয়ে যেতে দেবেন সতীর্থরা?

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ৩০ নভেম্বর ২০২২

Back to top button