ইসলাম

শিরক করার পরিণাম সম্পর্কে নবিজি (সা.) কী বলেছেন?

শিরক তথা আল্লাহর সঙ্গে অংশীদার স্থাপন করা সবচেয়ে বড় গুনাহ। নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম শিরকের মারাত্মক পরিণাম সুস্পষ্টভাবে তুলে ধরেছেন। আল্লাহ তাআলা নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকেও শিরক থেকে সতর্কতা অবলম্বন করতে এভাবে বলেছেন-

لَئِنْ أَشْرَكْتَ لَيَحْبَطَنَّ عَمَلُكَ وَلَتَكُوْنَنَّ مِنَ الْخَاسِرِيْنَ

‘যদি তুমি শিরক কর, তবে তোমার সমস্ত আমল অবশ্যই বাতিল হয়ে যাবে এবং নিশ্চিত ক্ষতিগ্রস্তদের অন্তর্ভুক্ত হবে।’ (সুরা যুমার : আয়াত ৬৫)

১. হজরত আবু বকর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-

أَلاَ أُنَبِّئُكُمْ بِأَكْبَرِ الْكَبَائِرِ؟ قُلْنَا بَلَى يَا رَسُوْلَ اللهِ. قَالَ الإِشْرَاكُ بِاللهِوَعُقُوْقُ الْوَالِدَيْنِ

‘আমি কি তোমাদের সবচেয়ে বড় গুনাহ সমূহের কথা বলব না? সাহাবিগণ বললেন, নিশ্চয়ই বলুন, হে আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, ‘আল্লাহর সঙ্গে শরিক স্থাপন করা, পিতা-মাতার অবাধ্য হওয়া…’। (বুখারি ৬৯৭৬; মুসলিম ৮৭)

২. হজরত জাবির রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-

مَنْ لَقِىَ اللهَ لاَ يُشْرِكُ بِهِ شَيْئًا دَخَلَ الْجَنَّةَ وَمَنْ لَقِيَهُ يُشْرِكُ بِهِ دَخَلَ النَّارِ

‘যে ব্যক্তি কোনো শিরক করা ছাড়া আল্লাহর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে (মৃত্যুবরণ করবে) সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। আর যে ব্যক্তি শিরক করা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে সে জাহান্নামে প্রবেশ করবে।’ (মুসলিম ৯৩)

৩. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আল্লাহ তাআলা বলেন-

مَنْ عَمِلَ عَمَلاً أَشْرَكَ فِيْهِ مَعِىْ غَيْرِىْ تَرَكْتُهُ وَشِرْكَهُ

‘যে ব্যক্তি এমন আমল করে যে আমলে আমার সঙ্গে অন্যকে শরিক করেছে, এমন (সেই) আমল ও যাকে সে শরিক স্থাপন করেছে, উভয়ই আমি প্রত্যাখ্যান করি।’ (মুসলিম ৭৬৬৬; মিশকাত ৫৩১৫)

আল্লাহ তাআলা উম্মতে মুসলিমাকে শিরকের মতো জঘন্য গুনাহের কাজ থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

আইএ

Back to top button