জাতীয়

দুদিন পর বাড়তে পারে রাতের তাপমাত্রা

ঢাকা, ২৬ নভেম্বর – বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হলে দুদিন পর রাতের তাপমাত্রা বেড়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) হেমন্তের দ্বিতীয় মাস অগ্রহায়ণের ১১ তারিখ। এরই মধ্যে শীত শুরু হয়েছে। গ্রামে পুরোদমে শীত অনুভূত হচ্ছে। শীত নেমেছে শহরেও।

শুক্রবারের তুলনায় আজ (শনিবার) সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সামান্য কমেছে। কমছে ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রাও। শুক্রবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। শুক্রবার সকালে তা সামান্য কমে হয়েছে ১২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শুক্রবার সকালে ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকলেও শনিবার তা কমে হয়েছে ১৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে, এর বর্ধিতাংশ উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বিহার এবং তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে তিনি বলেন, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

এসময়ে সারাদেশে রাতের ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী দুদিন পর রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে।

শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল কক্সবাজারে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ২৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button