ফুটবল

আসরের সেরা গোলটাই কি করে ফেললেন রিচার্লিসন?

দোহা, ২৫ নভেম্বর – সেন্ট্রাল ফরোয়ার্ডে কেন রিচার্লিসন? তিনি কেন নাম্বার নাইন জার্সিতে? এই প্রশ্ন অনেকেরই ছিল। প্রথাগত স্ট্রাইকার হিসেবে যাত্রা শুরু হলেও ক্লাবে তিনি খেলেন উইঙ্গে। চলতি মৌসুমে টটেনহ্যামে যোগ দিলেও লিগ ম্যাচে গোল পাননি। অন্যদিকে গ্যাব্রিয়েল জেসুস আর্সেনালের জার্সিতে ছন্দে আছেন। তিনি ক্লাবেও খেলেন স্ট্রাইকার পজিশনে।

রিচার্লিসনকে মেইন স্ট্রাইকার হিসেবে খেলানোর ভালো ব্যাখ্যা দিতে পারবেন ব্রাজিলের কোচ তিতে। তার আগ্রাসন, দুই পায়ের পাশাপাশি হেডে শক্তিশালী হওয়ায় হয়তো তিনি অন্যদের চেয়ে কিছুটা এগিয়ে গেছেন। কিন্তু আসল কাজ তো গোল করা। ব্রাজিলের জার্সিতে ওই গোলের ধারায় তিনি ছিলেন।

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করলেন রিচার্লি। প্রথমে ভিনিসিয়াসের নেওয়া জোরালো শট সার্বিয়ার গোলরক্ষক ফেরালেও ফাঁকায় থাকা রিচার্লি ফাঁকা জালে বল পাঠিয়ে দেন। এরপর ৭৩ মিনিটে তিনি নিজের ও দলের দ্বিতীয় পক্ষে দ্বিতীয় গোলটি করেন।

ওই গোলের কারিগরও ভিনিসিয়াস। তরুণ ফরোয়ার্ড দারুণ এক বল নিয়ে ঢুকে পড়েন। বক্সের কোণা থেকে বক্সের ঠিক মাঝখানে থাকা রিচার্লিকে জোরের ওপর বল পাঠান। টটেনহ্যামে খেলা তরুণ ফরোয়ার্ড দুর্দান্ত দক্ষতায় ওই বল রিসিভ করে।

বল ঘুরিয়ে নেন উল্টো প্রান্তে। মুহূর্তে ঘুরে শরীর বাতাসে ভাসিয়ে বাই সাইকেল ভলি করেন। বল জালে জড়িয়ে যায়। লুসাইল স্টেডিয়ামের ৮০ হাজার দর্শকের সঙ্গে সার্বিয়ার গোলরক্ষক মিলিনকোভিক সাভিকও দর্শক হয়ে ওই শট জালে জড়িয়ে যেতে দেখেন।

এখন পর্যন্ত রিচার্লিসনের ওই গোলই আসরের সেরা। এমনকি কাতার বিশ্বকাপের সেরা গোলটিই রিচার্লিসন করে ফেলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। সংবাদ মাধ্যম টক স্পোটর্সের ধারাভাষ্যকার জে শেন্যানের মতে, এটা শুধু কাতারের নয় বিশ্বকাপ ইতিহাসের সেরা গোলগুলোর একটি।

ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এর অফিসিয়াল টুইটারে লেখা হয়েছে, রিচার্লিসন এটা তুমি কী দেখালে! ফক্স স্পোর্টস, বিবিসি স্পোর্টস তাদের টুইটারে রিচার্লির অসাধারণ ওই গোল শেয়ার করেছে। জাদুকরী, পাগলাটে গোল বলে উল্লেখ করেছে। ব্রাজিলের নাম্বার নাইন জার্সি পরা রিচার্লিসন এখন বলতেই পারেন, ‘বলেছিলাম না, নাম্বার নাইন জার্সি পরলে গোলের গন্ধ পাই।’

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২৫ নভেম্বর ২০২২

Back to top button