এশিয়া

চীনের গুয়াংজুতে লকডাউনে বন্দি লাখ লাখ মানুষ

বেইজিং, ২৪ নভেম্বর – করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণ রোধে চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর গুয়াংজুতে সোমবার লকডাউন আরোপ করা হয়েছিল। সেখানে গণপরিবহন বন্ধের পাশাপাশি বাসিন্দাদের ঘরের বাইরে যেতে বাধ্যতামূলক কোভিড পরীক্ষা করতে হয়েছে।

শূন্য কোভিড নীতি বাস্তবায়নে আরও কঠোর হওয়ার ঘোষণার মধ্যে এই লকডাউন আরোপ করেছে চীন। যদিও করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভেরিয়েন্টের কারণে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা থামছেই না।

দ্য ডিপ্লোম্যাট এক প্রতিবেদনে বলেছে, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে তিন বছরে চীনই একমাত্র দেশ যারা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এখনও কঠোর নিয়ম মেনে যাচ্ছে। গুয়াংজুর ৩৭ লাখ মানুষের বাইয়ুন ডিস্ট্রিক্টে সশরীরে স্কুলের ক্লাস এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ঘোষণা করা হয়েছে, এই পদক্ষেপ চলবে ২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার পর্যন্ত।

এদিকে রোববার রাজধানী বেইজিংয়ে কোভিডের উপসর্গে আরও দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। শহরটিতে ছয় মাসেরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো কোভিড আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। ফলে সমালোচকরা দেশটির কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা এবং মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

এ মাসের শুরুতে চীন ঘোষণা দিয়েছিল তারা শূন্য কোভিড নীতি শিথিল করবে। তবে বিষয়টি নিয়ে চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের পরিচালক লেই হেইচাও বলেন, কিছু বিষয়ের শিথিলতা মানে হলো এই নীতিকে আরও বিজ্ঞান নির্ভর ও সুনির্দিষ্ট করার চেষ্টা।

উত্তর হেবেই প্রদেশের সিজিয়াঝুয়াং শহরের ছয়টি ডিস্ট্রিক্টের সকল বাসিন্দাদের কোভিড পরীক্ষা করা হচ্ছে। বেইজিংয়ের হেইডিয়ান ডিস্ট্রিক্টে রোববার রাতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলে সশরীরে ক্লাস স্থগিতের ঘোষণা দেয় কর্তৃপক্ষ।

সোমবার সারা দেশে ২৭ হাজার ৯৫ জন কোভিড আক্রান্তের মধ্যে কেবল গুয়াংডং প্রদেশেই ৯ হাজার ৮৫ জনের কোভিড শনাক্ত হয়।

সূত্র: একুশে টেলিভিশন
আইএ/ ২৪ নভেম্বর ২০২২

Back to top button