জাতীয়

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন বিএনপির একার পক্ষে সম্ভব নয়

পাবনা, ১৮ অক্টোবর – বিএনপি নেত্রী, সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় গেলে জাতীয় সরকার গঠন ও দ্বিকক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্ট গঠন করবে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন বিএনপির একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ জন্য দেশের অন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশের আগের চেহারা ফিরিয়ে আনতে, গণতন্ত্র, আইনের শাসন, সুশাসন প্রতিষ্ঠা, মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা, মানুষের ন্যায়বিচার পাওয়া ও মানবাধিকারে বিশ্বাস করেন সেই সকল দলগুলো সাথে নিয়েই জাতীয় সরকার গঠনের বিকল্প নেই। জয়ী ও বিজিত নিয়েই এই জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠা হবে।’

বিএনপির মিডিয়া সেলের আয়োজনে শুক্রবার বিকালে পাবনায় সুধী সমাজের সাথে ‘জবাবদিহিতামূলক রাষ্ট্র গঠনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন পরবর্তী জাতীয় সরকার ও দ্বিকক্ষবিশিষ্ট জাতীয় সংসদ অপরিহার্য’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় রত্মদ্বীপ রিসোর্টের কনফারেন্স রুমে এসব কথা বলেন তিনি।

সভায় রুমিন ফারহানা বলেন, ‘যে সকল ক্ষুদ্র রাজনৈতিক দলগুলো জাতীয় সরকারের সাথে যুক্ত হবেন। তাদের প্রার্থী যদি এমপি হিসেবে নির্বাচিত নাও হন, তবুও তাদের মেধা প্রজ্ঞা ও গঠনমূলক মতামত জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করতে পারবেন। বিএনপির হাত দিয়ে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, দেশের চারটির পরিবর্তে অসংখ্য গণমাধ্যম তৈরি ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা এসেছে। বিএনপি পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে প্রমাণ পেয়েছে এক কক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট থাকলে সেখানে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া দলটি স্বৈরতান্ত্রিক ভূমিকায় অবস্থান করে।’
মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক, সাবেক সংসদ সদস্য জহির উদ্দিন স্বপনের সভাপতিত্বে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতির সঞ্চালনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএনপি মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব, সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

এ সময় বক্তব্য রাখেন পাবনা মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল করিম, পাবনা জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি ও সম্পাদক অ্যাড. মির্জা আজিজুর রহমান, ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. জাকির হোসেন, পাবনা প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি মির্জা আজাদ, জাসদ (রব) পাবনা জেলা শাখার সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন কবির ও ড্যাবের পাবনা জেলা শাখার সদস্য সচিব ডা. আহমেদ মোস্তফা নোমান।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
এম ইউ/১৮ অক্টোবর ২০২২

Back to top button