জাতীয়

জামায়াত সংশ্লিষ্টরা নতুন নামে নিবন্ধন চেয়েছে কিনা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা

ঢাকা, ১৭ নভেম্বর – নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রাশেদা সুলতানা বলেছেন, ভিন্ন নামে জামায়াতে ইসলামী নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধন চেয়েছে কিনা- তা আগাম বলা ঠিক হবে না। যাচাই-বাছাই করে যদি প্রমাণ হয় আদালতের রায়ে নিবন্ধন হারানো জামায়াত ভিন্ন নামে নিবন্ধনের জন্য এসেছে, তাহলে কমিশন বসে সিদ্ধান্ত নেবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ইসিতে নিবন্ধনের জন্য ইতোমধ্যে আবেদন করেছে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট পার্টি (বিডিপি)। এই দলের নেতৃত্বে রয়েছেন জামায়াত ও শিবিরের নেতারা। রাজনৈতিক মহলে আলোচনা হচ্ছে যে বিডিপির এ নিবন্ধনের আবেদন আগামী সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে জামায়াতের পরিকল্পনার অংশ কিনা।

এদিকে মুক্তিযুদ্ধে শহিদদের সন্তানদের সংগঠন ‘প্রজন্ম-৭১’ একটি স্মারকলিপি দিয়েছে ইসিতে। সংগঠনটি জামায়াত-সংশ্লিষ্ট কোনো রাজনৈতিক দলকে ইসিতে নিবন্ধন না দেওয়ার দাবি জানিয়েছে স্মারকলিপিতে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইসি রাশেদা বলেন, বিডিপি নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। অন্যরা বলছেন যে তারা (জামায়াতে ইসলামী) অন্য নামে আবেদন দিয়েছে। সেটা প্রমাণের বিষয়। আগে যাচাই-বাছাই হোক, তখন বলা যাবে।

তিনি আরও বলেন, শুধু বিডিপি নয়; যে ৯৩টি দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে, সবার বিষয়ে আইনি কাঠামোসহ সবকিছু যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে। গঠনতন্ত্র যাচাই করেই নিবন্ধন দেওয়া হবে।

সূত্র: যুগান্তর
আইএ/ ১৭ নভেম্বর ২০২২

Back to top button