ইউরোপ

যুক্তরাজ্যে ৪১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি, পণ্যের দাম চড়া

লন্ডন, ১৭ নভেম্বর – বাড়িঘরের বিদ্যুৎ বিল এবং খাদ্যের দাম বৃদ্ধির কারণে যুক্তরাজ্যের মুদ্রাস্ফীতি ৪১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে গিয়ে ঠেকেছে। অর্থমন্ত্রী জেরেমি হান্ট মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে ‘কঠোর কিন্তু প্রয়োজনীয়’ কর বৃদ্ধি এবং ব্যয় কমানোর ঘোষণা দেওয়ার এক দিন আগে এ তথ্য জানা গেছে।

জাতীয় পরিসংখ্যান দপ্তর বুধবার জানিয়েছে, ভোক্তাদের দাম অক্টোবর থেকে আগের ১২ মাসে ১১ দশমিক ১ শতাংশ বেড়েছে, যা ১৯৮১ সালের অক্টোবরের পর থেকে সবচেয়ে বেশি। অক্টোবরে মূল্যস্ফীতি বেড়ে ১৩ দশমিক ৮ শতাংশের কাছাকাছি হত, যদি সরকার গৃহস্থালির বিদ্যুতের বিল বছরে গড়ে দুই হাজার ৫০০ পাউন্ডে সীমাবদ্ধ রাখতে হস্তক্ষেপ না করত।

রয়টার্সের জরিপে অর্থনীতিবিদদের অধিকাংশই জানিয়েছেন, মুদ্রাস্ফীতি সম্ভবত এখন শীর্ষে পৌঁছেছে। এর আগে তারাই পূর্বাভাস দিয়েছিলেন যে মুদ্রাস্ফীতি ১০ দশমিক ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে৷

বৃহস্পতিবার একটি নতুন বাজেটের রূপরেখা দেবেন ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী জেরেমি হান্ট। রয়টার্সের প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় তিনি জানিয়েছেন, ক্রমবর্ধমান দাম মোকাবেলায় ‘কঠিন তবে প্রয়োজনীয়’ সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার ছিল।

তিনি একটি বিবৃতিতে বলেছেন, ‘দেশের অর্থনীতিতে দায়িত্বশীলভাবে কাজ করার মাধ্যমে লক্ষ্যমাত্রার মুদ্রাস্ফীতি ফিরিয়ে আনতে ব্যাংক অব ইংল্যান্ডকে তাদের মিশনে সাহায্য করা আমাদের কর্তব্য।’

বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, সুদের হার বাড়ানোর জন্য ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের উপর চাপ বজায় রেখেছে সরকার। তবে বৃহস্পতিবার ঘোষিত কৃচ্ছতারা মাত্রার অর্থ হতে পারে ঋণ নেওয়ার খরচ কম বাড়তে পারে।

সূত্র: রাইজিংবিডি
এম ইউ/১৭ নভেম্বর ২০২২

Back to top button