দক্ষিণ এশিয়া

১৮ বছরের কম বয়সীদের জন্য মোবাইল নিষিদ্ধ হল যে গ্রামে

নয়াদিল্লী, ১৭ নভেম্বর – আঠারো বছরের কম বয়সীদের জন্য মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হল ভারতের মহারাষ্ট্রের পশ্চিম বিদর্ভের বংশী গ্রামে। স্থানীয় পঞ্চায়েত সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কারণ গ্রামের কিশোর-কিশোরীরা নাকি মোবাইলে আসক্ত হয়ে যাচ্ছে। এ কারণেই এই কড়া সিদ্ধান্ত নিল গ্রাম পঞ্চায়েত। গ্রাম পঞ্চায়েত জানিয়েছে, শুধু উন্নয়ন নিয়েই গ্রামসভায় আলোচনা হবে এমনটা নয়, সামাজিক জীবনে যাতে সুস্থতা থাকে সে ব্যাপারেও আলোচনা হতে পারে গ্রামসভায়।

গ্রামবাসীদের একাংশের দাবি, গ্রামের কম বয়সী ছেলেমেয়েরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা মোবাইল দেখে কাটিয়ে দিচ্ছে। চ্যাট করছে, গেম খেলছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যস্ত থাকছে। এতে তাদের পড়াশোনার ব্যাক ক্ষতি হচ্ছে। পারিবারিক ও সামাজিক জীবনেও বড় প্রভাব পড়ছে।

বংশী গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান গজানন তালে জানিয়েছেন, সমস্ত অভিভাবকদের অনুরোধ করা হচ্ছে তাদের সন্তানরা যাতে এই নিয়ম মেনে চলে, সেটা দেখতে হবে।
পাশাপাশি পঞ্চায়েত প্রধানের দাবি, ১৮ বছরের কমবয়সিদের মোবাইল নিষিদ্ধ করার বিষয়টি সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন করা হয়েছে।

পঞ্চায়েত প্রধানের দাবি, গ্রামের অপ্রাপ্তবয়স্ক ছেলেমেয়েরা মোবাইলের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকছে। বাবা মায়ের কথাও তারা শুনছে না। কেউ কেউ পর্ন সিনেমা দেখছে। অ্যাডাল্ট সাইটে গিয়ে গেম খেলছে।

তিনি বলেন, এটা প্রয়োগ করা কঠিন জানি। তবুও কাউন্সেলিং করা হবে। এই সিদ্ধান্ত না মানলে জরিমানা করা হতে পারে। তবে প্রাথমিকভাবে তাদের বোঝানো হবে।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
আইএ/ ১৭ নভেম্বর ২০২২

Back to top button