বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

সমালোচনা করায় টুইটার কর্মীকে বাদ দিলেন ইলন মাস্ক

টুইটারের ধীরগতির জন্য দুঃখ প্রকাশ করে টুইট করেছিলেন নতুন মালিক ইলন মাস্ক। সেই টুইটের জবাব দিতে গিয়ে চাকরি গেছে এক টুইটার কর্মীর। কারণ তিনি ইলন মাস্কের সাথে একমত পোষণ করেননি।

ক্ষমা চেয়ে করা সেই টুইটে ইলন মাস্ক লিখেছিলেন, ‌‘বহু দেশে টুইটার সুপার স্লো। আমি সে জন্য ক্ষমা চাই’। ইলন মাস্কের মন্তব্যের জবাবে টুইটার ডেভেলপার এরিক ফ্রনহফার টুইট করে বলেন, ‌‘ছয় বছর ধরে টুইটারে অ্যান্ড্রয়েডের জন্য কাজ করছি। আমি বলতে পারি মাস্কের এমন মূল্যায়ন ভুল’।

ইলন মাস্ক পাল্টা টুইট করে জানতে চান, ‘তাহলে আমাকে সঠিক তথ্য জানাও। সঠিক মূল্যায়ন কী হবে?’ মাস্ক আরও লিখেছেন, ‘অ্যান্ড্রয়েডে টুইটার সুপার স্লো। এ সমস্যাগুলো ঠিক করতে ডেভেলপাররা কী কী করেছে?’ এর জবাবে বেশ কয়েকটি টুইট করেন এরিক ফ্রনহফার। তাতে গৃহীত পদক্ষেপ ও নিজের সুপারিশ তুলে ধরেন তিনি।
এক ব্যক্তি ইলন মাস্কের পক্ষ নিয়ে লেখেন, মাস্কের মূল্যায়ন যে সঠিক নয়, সে বিষয়টি তাকে ব্যক্তিগতভাবে জানানো উচিত ছিল। এর জবাবে ফ্রনহফার লিখেছেন, ‘মাস্কের উচিত ছিল বিষয়টি ব্যক্তিগতভাবে জানতে চাওয়া। তিনি ই-মেইলের মাধ্যমেও বিষয়টি জানতে চাইতে পারতেন’।

ফ্রনহফারের জবাবটি ইলন মাস্ককে ট্যাগ করে এক ব্যবহারকারী লেখেন, ‘এ ধরনের আচরণের কোনো ব্যক্তিকে আপনার টিমে রাখবেন কি না?’ এর জবাবে ইলন মাস্কে লেখেন, ‘ফ্রনহফারের চাকরি আর নেই’।

এম ইউ/১৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button