জাতীয়

বিএনপির মূল নেতৃত্বে কে?

ঢাকা, ১৬ নভেম্বর – আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির যোগ দেয়া না দেয়া নিয়ে যখন চলছে জল্পনা-কল্পনা ঠিক সেই সময় দলটির সিনিয়র নেতাদের কাছ থাকে দলের নেতৃত্ব নিয়ে আসছে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য। এরফলে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে আসলে বিএনপি কার নেতৃত্বে নির্বাচনে যাবে। একইসঙ্গে নির্বাচনে বিজয়ী হলে সরকারপ্রধান-ই বা কে হবেন?

সম্প্রতি দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে হবে আগামী সরকার। এর কিছুদিন আগে স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, তারেক রহমানের নেতৃত্বে আগামীতে হবে জাতীয় সরকার। এরফলে দলটির তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে বলে জানা গেছে। দলের দুজন জ্যেষ্ঠ নেতার দুই রকম বক্তব্যে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন তারা।

আসলেই আগামী নির্বাচনে দলের নেতৃত্ব কে দেবেন এ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে সংশয়।

রাজধানীর নয়াপল্টনে গত ২ নভেম্বর বিকেলে এক বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, এই সরকারকে হটে যেতে হবে। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। মেশিনে নয়, জনগণ নিজের হাতে ভোট দিয়ে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবে। যদি তা সম্ভব হয়, তাহলে এ দেশে পরবর্তী সরকার হবে খালেদা জিয়ার সরকার, তারেক রহমানের সরকার।

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালে দায়ের করা একটি মামলায় ১ নভেম্বর গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

এর প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি এ সমাবেশের আয়োজন করে। এরপর ১১ নভেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবে একটি আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকারের বিদায়ের পর তারেক রহমান যে দিকনির্দেশনা দিয়েছেন, সে অনুযায়ী আন্দোলনরত সব শক্তিকে নিয়ে জাতীয় সরকার গঠন করা হবে। জাতীয় সরকার কী কী বিষয়ে সংস্কার করবে, সেটাও স্পষ্ট করা হবে জাতির সামনে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের নেতা তারেক রহমান জনগণের কাছে বিএনপির অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। আমরা নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচনে যাবো না। মানুষ এখন এই সরকারের অত্যাচার নির্যাতনের ফলে রাজপথে নেমে এসেছে, এই সরকার পালানোর পথ খুঁজে পাবে না।’

মূলত এ বক্তব্যের পরেই তৃণমূলে আলোচনা শুরু হয়, আসলে দলের নেতৃত্ব কার হাতে? কে দেবেন দিকনির্দেশনা। আসন্ন নির্বাচনে অংশ নিলে প্রধান মুখ কে হবে? এবং বিজয়ী হলে সরকারপ্রধান কে হবেন তা নিয়েও দেখা দিয়েছে সংশয়। কারণ বর্তমানে দলের প্রধান খালেদা জিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দুজনই ভিন্ন ভিন্ন মামলায় দণ্ডিত আসামি।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button