কিশোরগঞ্জ

জ‌ঙ্গি সম্পৃত্ততার অভিযোগে আটক সেই চিকিৎসক চাকরিচ্যুত

কিশোরগঞ্জ, ১৬ নভেম্বর – কিশোরগঞ্জে জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে আটক প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মির্জা কাউসারকে (২৮) চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. আ ন ম নওশাদ খান  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ডা. কাওসার আমাদের মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেছেন। এরপর তিনি ইএনটির ডাক্তার হিসেবে কাজ করেন। কয়েক মাস আগে ফার্মাকোলজি বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন। তার স্ত্রীও একই হাসপাতালের ডাক্তার। তাকে একজন তাবলীগ করা ধর্মপ্রাণ মানুষ হিসেবে চিনি। তিনি গোপনে এমন কাজে লিপ্ত এটা বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে। তবে যেহেতু তার বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদে জড়িত থাকার মতো গুরুতর অভিযোগ উঠেছে তাই তাকে প্রভাষকের পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

১২ নভেম্বর সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জ পৌর শহরের খরমপট্টি এলাকায় মেডিক্স কোচিং সেন্টার থেকে ডা. কাউসারকে আটক করে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট।

ডা. মির্জা কাউসার জেলার বাজিতপুর উপজেলার উজানচর গ্রামের মির্জা আবদুল হাকিমের ছেলে। তিনি পৌর শহরের খরমপট্টি এলাকায় মেডিক্স নামে একটি কোচিং সেন্টার পরিচালনা করতেন। থাকতেন খড়মপট্টি বায়তুল আমান মসজিদের পেছনে একটি ভাড়া বাসায়।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ১৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button