ইউরোপ

পোল্যান্ডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ২

ওয়ারশ, ১৬ নভেম্বর – পূর্ব ইউরোপের দেশ পোল্যান্ডে বুধবার স্থানীয় সময় সকালে আঘাত হেনেছে একটি ক্ষেপণাস্ত্র। পোল্যান্ডের দাবি এটি রাশিয়ার তৈরি ক্ষেপণাস্ত্র। তবে রাশিয়া এ ব্যাপারে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি। বুধবার এমন তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এপি।

পোল্যান্ড জানিয়েছে, তাদের পূর্বাঞ্চলের একটি গ্রামে রাশিয়ার তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রটি আঘাত করেছে। এতে দুইজন নিহত হয়েছেন। রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করার পর এবারই প্রথমবারের মতো ন্যাটোভুক্ত কোনো দেশে গিয়ে পড়ল রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র।

বিশ্বের বৃহত্তম সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য পোল্যান্ডে ক্ষেপণাস্ত্র পড়ায় উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। কারণ জোটটির আর্টিকেল-৫ অনুযায়ী— জোটের কোনো একটি দেশের ওপর হামলা মানে পুরো জোটের ওপর হামলা। ক্ষেপণাস্ত্র পড়ার পর ন্যাটোর মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ জরুরি বৈঠক ডেকেছেন। তাছাড়া জি-৭ জোট ও জাতিসংঘও বৈঠক ডেকেছে।

তবে পোল্যান্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা এ মূহুর্তে ক্ষেপণাস্ত্র পড়ার বিষয়টিকে ‘পোল্যান্ডের ওপর রাশিয়ার হামলা’ হিসেবে বিবেচনা করছে না। ক্ষেপণাস্ত্র পড়েছে পোল্যান্ডের পিওদো গ্রামে। এটি ইউক্রেন সীমান্তের সঙ্গে লাগোয়া একটি গ্রাম।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এই হামলাকে ‘দ্বন্দ্ব বৃদ্ধি’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। অন্যদিকে পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তারা বিষয়টি তদন্ত করছেন।

পোল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা নিশ্চিত হয়েছেন ক্ষেপণাস্ত্রটি রাশিয়ায় তৈরি হয়েছে। তবে প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ দুদা এখনো জানাননি ক্ষেপণাস্ত্রটি কোন দেশের। বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় তিনি প্রকাশ্যে কাউকে দোষারোপ করেননি। প্রেসিডেন্ট দুদা বলেছেন, ‘কর্মকর্তারা নিশ্চিতভাবে জানেন না কে এগুলো ছুঁড়েছে এবং এগুলো কোথায় তৈরি। এগুলো খুব সম্ভবত রাশিয়ার তৈরি। তবে আরও তদন্ত করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা শান্তভাবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছি। এটি একটি কঠিন পরিস্থিতি।’ তবে এরমধ্যে পোল্যান্ডে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূততে ডেকে পাঠানো হয়েছে এবং তার কাছে এ ঘটনার জবাব চাওয়া হয়েছে।

সূত্র: ঢাকা পোস্ট
আইএ/ ১৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button