বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

অর্ধেক সম্পত্তি দান করবেন জেফ বেজোস

অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস জীবিত থাকতেই অর্জিত সম্পদের অর্ধেকের বেশি দান করে দেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। সোমবার (১৪ নভেম্বর) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের একটি সাক্ষাৎকারে এ ঘোষণা দেন তিনি। বর্তমানে তার সম্পদের পরিমাণ ১২ হাজার ৪০০ কোটি ডলার।

সিএনএনের সাক্ষাৎকারে জেফ বেজোসকে প্রশ্ন করা হয়, আপনি কি আপনার জীবদ্দশায় অধিকাংশ সম্পদ দান করে দেবেন? জবাবে তিনি বলেন, হ্যাঁ, আমি আমার সম্পদের অধিকাংশই দান করে দেবো।

কোন কোন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানকে সম্পদ দান করবেন তা স্পষ্ট করে না বললেও, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই ও বৈষম্য কমাতে সম্পদ দান করবেন বলে জানান তিনি।

বিপুল পরিমাণ এ সম্পদ কোথায়, কীভাবে দান করবেন- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি এখনো চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নিইনি। তবে লরেন সানচেজের সঙ্গে আলাপ করে পরিকল্পনা তৈরি করছি।

২০২০ সালে ‘বেজোস আর্থ ফান্ড’ সংস্থার মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই ও প্রকৃতিকে রক্ষা করতে এক হাজার কোটি ডলার দানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বেজোস। পৃথিবীতে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানের পরিবর্তে মহাকাশ ভ্রমণে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয়ের পর সমালোচনা ‍সৃষ্টি হলে এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

১৯৯৪ সালে অনলাইনে পণ্য বিক্রির প্ল্যাটফর্ম হিসেবে অ্যামাজন প্রতিষ্ঠা করেন বেজোস। ২০১৮ সালে হয়ে ওঠেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী। ২০২২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত এ খ্যাতি ধরে রাখেন তিনি।

২০২১ সালে অ্যামাজনের প্রধান নির্বাহীর পদ থেকে পদত্যাগ করলেও পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন বেজোস। অ্যামাজন ছাড়াও মার্কিন গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট ও মহাকাশ পর্যটন কোম্পানি ব্লু অরিজিনের মালিক তিনি।

জেফ বেজোসের আগে বিনিয়োগকারী ওয়ারেন বাফেট, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, বেজোসের সাবেক স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি স্কটসহ অনেক ধনকুবেরই নিজের সম্পত্তি দান করে যাওয়ার কথা জানান।

এম ইউ/১৫ নভেম্বর ২০২২

Back to top button