ফুটবল

ফুটবলপ্রেমীদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করবে কাতার

দোহা, ১৫ নভেম্বর – দেশ-বিদেশ থেকে আসার ফুটবলপ্রেমীদের উন্নতমানের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতের পরিকল্পনা করেছে কাতার কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে দর্শকদের আনাগোনা সব থেকে বেশি হবে এমন দুটি স্পটে ৬০টিরও বেশি ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম নিয়োগ করেছে শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি প্রশাসন।

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, প্রায় ৪৬টিরও বেশি ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম থাকবে রাজধানী দোহার করনিশে। অন্যদিকে, আল বিদ্দা পার্কে কাজ করবে ১৮টি টিম। পর্যাপ্ত অ্যাম্বুলেন্সের পাশাপাশি চালু করা হবে ইমারজেন্সি ক্লিনিক। প্রয়োজনে ভক্তদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে স্থাপন করা হবে একাধিক তাঁবু।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জরুরি পরিস্থিতিতে ১৫ মিনিটের মধ্যে অত্যাধুনিক ভ্রাম্যমান হাসপাতাল স্থাপন করার সক্ষমতা আছে কাতারের। ম্যাচের দিন প্রতিটি স্টেডিয়ামে একটি করে অস্থায়ী হাসপাতাল স্থাপন করা হবে। এর পাশাপাশি, স্টেডিয়ামগুলোতে থাকবে একটি করে কমান্ড সেন্টার, যেখান থেকে জরুরি সব নির্দেশনা দেওয়া হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুসারে, স্টেডিয়াম ও মূল আবাসন এলাকাগুলোর কাছাকাছি থাকবে ১০০টিরও বেশি ক্লিনিক। মেডিকেল টিম, নিবিড় পর্যবেক্ষণ টিম, দ্রুত সাড়াদানকারী টিম ও অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে জরুরিসেবা সরবরাহ করা হবে। এমনকি, হায়া কার্ডধারী ভ্রমণকারীরা চারটি সরকারি হাসপাতাল থেকে বিনামূল্যে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

কাতারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, ফিফা বিশ্বকাপ উপভোগ করতে আসা ভক্তরা দেশটির প্রাইভেট কি্লনিক থেকেও স্বাস্থ্যসেবা নিতে পারবেন। তবে, এর জন্য অবশ্যই কাতারে অবস্থান করা সময় পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবা সংবলিত ভ্রমণ বীমা থাকতে হবে।

যদি কারও কোনো বড় সমস্যা দেখা দেয়, তাহলে চিকিৎসাকর্মীরা আগে পরীক্ষা করবেন ও অবস্থার ওপর ভিত্তি করে রোগীকে উপযুক্ত তাঁবুতে স্থানান্তর করা হবে।

এদিকে, আয়শা বিনতে হামাদ আল আত্তিয়াহ, আল ওয়াকরা, হামাদ জেনারেল হাসপাতাল ও হায্ম মেবাইরিক জেনারেল হাসপাতালে জরুরি পর্যবেক্ষণ (আরজেন্ট কেয়ার ) ইউনিট থাকবে। হায়া কার্ডধারীরা টুর্নামেন্ট চলাকালে এইচএমসি সুবিধার আওতায় বিনামূল্যে জরুরি ও নিবিড় স্বাস্থ্যসেবা নিতে পারবেন।

কাতারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, সাম্প্রতিক বিধি-বিধান ও চিকিৎসা খরচ টুর্নামেন্টের পুরো সময় জুড়ে দেশটির সব নাগরিক ও প্রবাসীদের জন্য প্রযোজ্য হবে। তাছাড়া, সরকারি হাসপাতাল বা স্বাস্থ্যপ্রতিষ্ঠান থেকে জরুরি নয় এমন সেবা নিতে ফি দিতে হবে ভ্রমণকারীদের।

ফুটবলভক্তরা ১৬০০০ হাজার নম্বরে কল করে কাতারের যেকোনো হাসপাতাল, স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ক্লিনিক ও ফার্মেসি থেকে সেবা নিতে পারবেন। হেল্পলাইন কর্মীরা নিকটবর্তী চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান থেকে এ সেবা নিশ্চিতে সর্বোচ্চ সহায়তা করবেন।

আল জাজিরাতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কাতার বিশ্বকাপের হেল্থ স্ট্র্যাটেজিক কমান্ড গ্রুপের প্রধান ডা. আহমেদ আল মোহাম্মদ বলেন, আমি ভক্তদের বলবো, জরুরি স্বাস্থ্যসেবার প্রয়োজন হলেই নিকবর্তী চিকিৎসাকেন্দ্রে যান। আপানাদের জন্য এটিই হবে সবচেয়ে সহজ রাস্তা। তারা বিনামূল্যে আপনাদের চিকিৎসা করবে।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ১৫ নভেম্বর ২০২২

Back to top button