জাতীয়

নতুন অফিসসূচিতে খুশি সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

ঢাকা, ১৫ নভেম্বর – শীত চলে আসায় আজ (১৫ নভেম্বর) থেকে নতুন সময়সূচিতে শুরু হয়েছে সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অফিস। নতুন নিয়মে সকাল ৯টায় অফিস শুরু হয়েছে, শেষ হবে বিকেল ৪টায়।

বিদ্যুৎসাশ্রয়ে এতদিন সকাল ৮টা থেকে চলছিল সরকারি অফিস। কিন্তু শীত মৌসুম আসায় দিন ছোট হয়েছে। বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সকাল ৮টায় অফিসে আসা কষ্টকর। সেজন্য অফিস শুরুর সময় এক ঘণ্টা বাড়িয়ে ৯টা থেকে করা হয়েছে।

অফিসের নতুন সময়সূচিতে খুশি সর্বস্তরের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তারা জানান, এখন সকাল হলেই ৮টা বেজে যায়। তাই তাড়াহুড়ো করে অফিসে আসতে হতো। নারীকর্মীদের কষ্ট ছিল সবচেয়ে বেশি। ঘরের কাজকর্ম শেষে ঊর্ধ্বশ্বাসে এসে সকাল ৮টায় অফিস ধরতে হতো। এখন অফিস ৯টা থেকে শুরু হলে সবারই সুবিধা হবে। তাড়াহুড়া করতে হবে না, ধীরে সুস্থে কাজকর্ম সেরে অফিসে আসা যাবে।

সকালে সচিবালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, ৯টার আগেই কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অফিসে আসতে শুরু করেছেন। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বহনকারী কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের গাড়িগুলো মোটামুটি ৯টার মধ্যে সচিবালয়ের ১ ও ২ নম্বর গেটের সামনে এসে থামে।

এ সময় বিপুল সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারী একসঙ্গে ১ ও ২ নম্বর গেটের মাঝখানের প্রবেশের স্থান দিয়ে সচিবালয়ে প্রবেশ করেন। ৯টার আগে থেকেই ১ নম্বর গেট দিয়ে কর্মকর্তাদের বিপুল সংখ্যক গাড়ি প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

 

সকাল পৌনে ৯টার দিকে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সাইফুল হাসান বাদলকে সচিবালয়ে প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান সকাল ৯টার দিকে সচিবালয়ে প্রবেশ করছিলেন। তিনি বলেন, ‘সকাল ৯টা থেকে অফিস শুরু করা খুবই ভালো সিদ্ধান্ত। সকাল ৮টায় অফিসে আসতে আসলে কষ্ট হতো।’

সচিবালয়ের প্রবেশের সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহকারী লাইব্রেরিয়ান আনিকা তাহসিন বলেন, ‘শীতের জন্য অফিস সময় ৯টা থেকে ৪টা খুবই সুবিধাজনক। কাজকর্ম সেরে সকাল ৮টার মধ্যে অফিসে আসাটা কষ্টকর ছিল। নতুন অফিস সময়ে আমরা খুশি।’

ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা রুনা লায়লা বলেন, ‘শীতকালের জন্য সকাল ৯টায় অফিস শুরুর সিদ্ধান্তটি খুবই ভালো। তবে গরমকালে সকাল ৮টায় অফিস শুরু হতে পারে। কারণ, তখন আগে চলে গিয়ে বাসার কাজকর্ম করে ফেলা যাবে।’

প্রবেশের সময় সচিবালয়ে ৭ নম্বর ভবনের সামনে কথা হয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অফিস সহায়ক জিল্লুর রহমানের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘নতুন অফিস টাইমের সিদ্ধান্তটা খুবই ভালো হয়েছে। আগে ফজরের নামাজ পড়ে আর সময় পাইতাম না। অফিসে দৌড় দেওয়া লাগতো। এখন নামাজ পড়ার পর কাজকর্ম সেরে ধীরে সুস্থে অফিসে আসতে পারব।’

 

অনেককে সকাল ৯টার পরেও অফিসে আসতে দেখা গেছে। সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে সচিবালয়ে গাড়ি রাখার স্থানগুলো পূর্ণ হয়ে যায়।

ওএমএসের চাল-আটা কিনতে সচিবালয়ে বন্ধ মুদি-মনিহারি দোকানের সামনে সকাল ৯টার আগেই ভিড় দেখা গেছে। যদিও দোকান খোলা হয় ৯টার পরে।

স্বাভাবিক সময়ে সরকারি অফিস সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত লেনদেন আর লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালিত হতো ৬টা পর্যন্ত।

বিদ্যুৎসাশ্রয়ে গত ২৩ আগস্ট থেকে অফিসের সেই সূচিতে পরিবর্তন আনে সরকার। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত অফিস করছেন সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা-কর্মচারীরা। বর্তমানে ব্যাংক লেনদেন পরিচালিত হচ্ছে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত।

শীত মৌসুমকে সামনে রেখে গত ৩১ অক্টোবর মন্ত্রিসভার বৈঠকে নতুন সময়সূচি অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অফিস সময়সূচি পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। শীত চলে আসায় আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে দেশের সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অফিস সময়সূচি পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে। শীতকালে সকাল ৮টায় অফিসে আসতে অসুবিধা হবে।

তিনি বলেন, আদালত, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সময়সূচির বিষয় নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে। সুপ্রিম কোর্ট, বাংলাদেশ ব্যাংকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত তারা নেবেন। এছাড়া স্কুল কলেজের সময়সূচির বিষয়ে উনাদের (শিক্ষা মন্ত্রণালয়) কর্তৃপক্ষ যেভাবে সিদ্ধান্ত নেবে সেভাবেই হবে।

 

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও চলছে নতুন সূচিতে

আজ থেকে ব্যাংক লেনদেন সকাল ১০টায় শুরু হয়েছে, চলবে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত। আর ব্যাংকের আনুষঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের লেনদেনও চলছে নতুন সূচিতে। মঙ্গলবার থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠান চলবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

গত ১৩ নভেম্বর বীমা খাতের জন্য নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। এতে বলা হয়েছে, সরকারি সিদ্ধান্ত ও ব্যাংক সময়ের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আইডিআরএ এবং সব বিমা কোম্পানির অফিস সময়সূচি পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৫ নভেম্বর থেকে সকাল ১০টা থেকে ৫টা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হলো।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ১৫ নভেম্বর ২০২২

Back to top button