দক্ষিণ এশিয়া

ভারতের প্রথম ভোটার শ্যামসরণ নেগি মারা গেছেন

নয়াদিল্লী, ০৬ নভেম্বর – ভারতের ‘প্রথম ভোটার’ খেতাব পাওয়া শ্যাম সরন নেগি আর নেই। শনিবার ১০৫ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়। মারা যাওয়ার তিন দিন আগেও এই অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক হিমাচল রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ভোট দিয়েছিলেন।

ব্রিটিশ শাসন থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পর ভারতের প্রথম সাধারণ নির্বাচনেনেগি প্রথম ভোট দিয়েছিলেন। ১৯৫২ সালের নির্বাচনের সময়ে নেগির রাজ্যে তুষারপাতের শঙ্কায় পাঁচ মাস আগে ১৯৫১ সালেই ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হয়। আর তাতে তিনি ভোট দিয়েছিলেন। এরপর থেকে নেগি প্রতিটি নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন।

ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেস ভারতের সেই প্রথম সাধারণ নির্বাচনে বড় জয় পায়। আর জওহরলাল নেহেরু ভারতে প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।

১২ নভেম্বরের নির্বাচনকে সামনে রেখে নেগির ভোট দেওয়া উপলক্ষে তার জন্য লাল গালিচা বিছিয়েছিলেন নির্বাচন কমিশনের কর্তারা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নেগি ভোটকেন্দ্রে যাননি। অসুস্থ থাকায় তিনি পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দিয়েছেন।

২০১৪ সালে নেগি ভারতের নির্বাচন কমিশনের দূত হয়েছিলেন লোকজনকে ভোটে উৎসাহ দিতে। গুগলের একটি ভিডিওতে তাকে দেখা গেছে ওই বছরের সাধারণ নির্বাচনে তিনি লোকজনকে ভোট দিতে উৎসাহ দিচ্ছেন।

গত বুধবার (২ নভেম্বর) নেগি পোস্টাল ভোট দেওয়ার পর ভারতের দ্য ট্রিবিউট গণমাধ্যম এক প্রতিবেদনে জানায়, তিনি বিবৃতিতে তরুণদের ভোট দিতে আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার এক নির্বাচন র‍্যালিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নেগির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিজ গ্রাম কালপায় তাকে দাহ করা হবে জানিয়েছে ভারত সরকার।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ০৬ নভেম্বর ২০২২

Back to top button