বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

দিনে ৪১ কোটি টাকার বিজ্ঞাপন হারাচ্ছে টুইটার

টুইটারের কর্মীসংখ্যা কমিয়ে ফেলার কারণ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির আয়ে বিশাল ধস নামার কথা জানিয়েছেন ইলন মাস্ক। আর এই ধস নামার জন্য সমালোচক ও প্রতিবাদী গ্রুপগুলোকে দায়ী করেছেন তিনি। মাস্কের অভিযোগ, সমালোচকদের চাপেই টুইটারকে অর্থপ্রদান থেকে পিছু হটছেন বিজ্ঞাপনদাতারা। খবর বিবিসির।

শনিবার (৫ নভেম্বর) এক টুইটে ইলন মাস্ক বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে, প্রতিদিন ৪০ লাখ মার্কিন ডলার (৪১ কোটি টাকা প্রায়) আয় হারানোয় টুইটারের কর্মীসংখ্যা কমানো ছাড়া আর কোনো পথ ছিল না।

তবে চাকরিচ্যুত সবাইকে ক্ষতিপূরণ বাবদ তিন মাসের অগ্রিম বেতন দেওয়া হয়েছে, যা আইনগত বাধ্যবাধকতার চেয়ে ৫০ শতাংশ বেশি বলে দাবি করেছেন টুইটারের নতুন মালিক।

এর আগে, শুক্রবার বিশ্বব্যাপী টুইটারের বহু কর্মী চাকরিচ্যুত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। শোনা যায়, মাস্ক টুইটার কিনে নেওয়ার পর চাকরি হারিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির কয়েক হাজার কর্মী।

টুইটারের নিরাপত্তা প্রধান ইয়োয়েল রথ এক টুইটে নিশ্চিত করেছেন, প্রতিষ্ঠানটির ‘প্রায় ৫০ শতাংশ কর্মী’ কমিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টের দুই হাজারের বেশি কন্টেন্ট মডারেটরের বেশিরভাগই চাকরিতে বহাল রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

মাস্ক বলেছেন, কন্টেন্ট মডারেশনের বিষয়ে তার শক্তিশালী প্রতিশ্রুতি পুরোপুরি অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবার এক অভ্যন্তরীণ ই-মেইলে টুইটার কর্মীদের জানানো হয়, দুর্ভাগ্যবশত প্রতিষ্ঠানের সাফল্যের অগ্রগতি নিশ্চিত করার জন্য ব্যাপক কর্মী ছাঁটাই প্রয়োজন।

এরপর অনেকেই জানিয়েছেন, তারা প্রাতিষ্ঠানিক ল্যাপটপ ও মেসেজিং ব্যবস্থা স্ল্যাক থেকে লগ আউট হয়ে গেছেন।

সাবেক এক জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক টুইটে দাবি করেছেন, টুইটারের অ্যালগরিদম সংক্রান্ত একটি টিমকেও চাকরিচ্যুত করেছেন ইলন মাস্ক। তবে পরে তা অস্বীকার করা হয়েছে।

বর্তমানে টুইটারের পুরো আয়ই আসে বিজ্ঞাপন থেকে। ইলন মাস্ক প্রতিষ্ঠানটির মালিকানা গ্রহণের পর থেকে ভক্সওয়াজেনের মতো বেশ কিছু খ্যাতনামা ব্র্যান্ড বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।

ইউরোপের বৃহত্তম গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, আমরা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি এবং এর বিবর্তনের ওপর নির্ভর করে পরবর্তী পদক্ষেপ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবো।

গত বৃহস্পতিবার খাদ্য প্রস্তুতকারক জেনারেল মিলসও একই কাজ করেছে। টুইটারকে অর্থপ্রদান সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া অন্য ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে রয়েছে গাড়িনির্মাতা জেনারেল মোটরস, অডি এবং ওষুধ নির্মাতা ফাইজারের মতো জায়ান্টরা।

চাপের মুখে ইলন মাস্ক টুইটারের আয় ব্যবস্থাপনায় ভিন্নতা আনার চেষ্টা করছেন। এরই মধ্যে ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টের জন্য মাসিক সাবস্ক্রিপশন ফি চালুর ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। টুইটারে ‘ব্লু টিক’ পেতে হলে এখন থেকে প্রতি মাসে আট ডলার দিতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্বের শীর্ষধনী।

আইএ/ ০৫ নভেম্বর ২০২২

Back to top button