দক্ষিণ এশিয়া

পরকীয়ার শাস্তি এড়াতে আফগান নারীর আত্মহত্যা

কাবুল, ১৭ অক্টোবর – পরকীয়ার জেরে বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়ায় এক আফগান নারীকে প্রকাশ্যে পাথর ছুড়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দিয়েছিল শাসকগোষ্ঠী তালেবান। আর এই শাস্তি এড়াতে আত্মহত্যা করলেন এক আফগান নারী।

ঘটনাটি ঘটেছে আফগানিস্তানের ঘোর প্রদেশে।
আফগানিস্তানের সংবাদমাধ্যম খামা প্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) ওই নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার কথা ছিল।

স্থানীয় তালেবান কর্মকর্তারা জানান, একজন বিবাহিত ব্যক্তির সঙ্গে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান ওই তরুণী। গত বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) ওই বিবাহিত ব্যক্তিরও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

ঘোর প্রদেশের প্রাদেশিক পুলিশের প্রধান আব্দুল রহমান বলেন, দোলাইনা জেলায় নারী কারাগারের অভাবের কারণে ওই নারীকে মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি দেওয়া হয়।

তালেবানের নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তারা জানান, একটি স্কার্ফ দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ওই নারী আত্মহত্যা করেন।

খামা প্রেসের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে নারীদের অন্য পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার প্রবণতা সম্প্রতি বেড়েছে। তবে তালেবান প্রকাশ্যে পাথর ছুড়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করে এই প্রবণতা কমানোর চেষ্টা করছে।

তালেবান একা নারীদের জন্য দূর পথ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, কোন নারী যদি সড়কপথে ৪৫ মাইল (৭২ কিলোমিটার) দূরত্ব পাড়ি দেয় তাহলে তাদের সাথে পরিবারের ঘনিষ্ঠ একজন পুরুষ আত্মীয়কে থাকতে হবে।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/১৭ অক্টোবর ২০২২

Back to top button