নাটোর

দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আ.লীগ নেতা নিহত

নাটোর, ১০ অক্টোবর – নাটোরের সিংড়ায় এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের বিবাদমান দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আফতাব হোসেন নামে সাবেক এক ইউপি সদস্য নিহত হয়েছেন। রোববার রাতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত আফতাব হোসেন সুকাশ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি সদস্য। তিনি বামিহাল গ্রামের মৃত গাজীর ছেলে। বর্তমান ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ফরিদ উদ্দিন ও তার ভাই ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল কুদ্দুসের অনুসারীদের হামলায় আফতাব উদ্দিন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। সংঘর্ষে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম সহ পাঁচ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিন জনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, এলাকার আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের বামিহাল গ্রামে সাবেক ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আফতাব উদ্দিনের সঙ্গে বর্তমান ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা ফরিদ উদ্দিন ও তার ভাই আব্দুল কুদ্দুসের বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে রোববার দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। রাত ৮টার দিকে আফতাবের নেতৃত্বে বামিহাল দশোপাড়ায় ফরিদ ও তার ভাই কুদ্দুস গ্রুপের অনুসারী রুহুল আমিন ও আবু মুসার বাড়িতে হামলা চালায়। এর জেরে কিছুক্ষণ পর রুহুল ও মুসা তাদের লোকজন নিয়ে বামিহাল বাজারে এসে সেখানে থাকা আফতাব ও তার লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা আফতাবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। সারা শরীরে জখম অবস্থায় স্থানীয়রা আফতাবকে উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আফতাবকে মৃত ঘোষণা করেন।

সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আমিনুল ইসলাম জানান, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে আফতাবের মৃত্যু হয়েছে।

সিংড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিল আকতার বলেন, ঘটনার পর বামিহাল এলাকাজুড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হামলাকারীদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

সূত্র: সমকাল
আইএ/ ১০ অক্টোবর ২০২২

Back to top button