ক্রিকেট

ব্যাটিং বিপর্যয়ে টাইগাররা

ওয়েলিংটন, ০৯ অক্টোবর – আজ দারুণ ছন্দে ছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে ভুলটা করলেন ইস সোধিকে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে খেলা। এতেই গড়বড় করে ফেললেন শান্ত। ২৯ বলে ৩৩ রান করে ফিরেছেন তিনি। শান্তকে ফিরিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে একশ উইকেটের স্বাদ পেলেন ইশ সোধি। শান্ত ফিরতেই মোসাদ্দেককে ফেরালেন সোধি। কেন উইলিয়ানসনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৪ বলে ২ রান করেছেন মোসাদ্দেক। এটি সোধির ১০১তম উইকেট।

১৩ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭৪ রানে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। ৩ রানে ইয়াসির ও ১৩ রানে ব্যাট করছে আফিফ।

সাব্বির রহমানকে বাদ দেওয়াতে নতুন ওপেনিং জুটি পায় বাংলাদেশ। মিরাজের সঙ্গে এসেছেন দলে ফেরা নাজমুল। সর্বশেষ ৮ ম্যাচে বাংলাদেশের এটি পঞ্চম ওপেনিং জুটি। কিন্তু মেকশিফট ওপেনার হিসেবে এবারো সফল হতে পারলো না মিরাজ। দ্বিতীয় ওভারেই বিদায় নিয়েছেন তিনি। টিম সাউদির শিকার হন মাত্র ৫ রান করে। এরপর ক্রিজে এসে শূন্য রানেই ফিরতে পারতেন লিটন দাস। কিন্তু জিমি নিশামের ক্যাচ মিসে জীবন পেয়েছিলেন লিটন। জীবন পেয়েও শুরু থেকে নড়বড়ে ছিলেন তিনি। ব্রেসওয়েলের বলে কট এন্ড বোল্ড হয়ে ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন লিটন।

বাংলাদেশের একাদশে এসেছে তিনটি পরিবর্তন। ফিরেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ফ্লাইট জটিলতার কারণে খেলতে পারেননি তিনি। বাদ পড়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান এবং সাব্বির রহমান। একাদশে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত এবং শরিফুল ইসলাম।

নিজেদের প্রথম ম্যাচ গুলোতে দুই দলই হেরেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে। শেষ পাঁচ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে কিউইদের জয় তিনটি, বিপরীতে বাংলাদেশের জয় দুইটি।

নিউজিল্যান্ড দলে আছে একটি পরিবর্তন। ব্লেয়ার টিকনারের জায়গায় ফিরেছেন অ্যাডাম মিলনে। গত মার্চের পর থেকে প্রথমবারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচ খেলতে নামছেন মিলনে। সর্বশেষ ইংল্যান্ডের দ্য হানড্রেড থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি চোটের কারণে।

বাংলাদেশ একাদশ: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান মিরাজ, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, লিটন দাস, ইয়াসির আলী, নুরুল হাসান, তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ, শরীফুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: ডেভন কনওয়ে, ফিন অ্যালেন, কেইন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), গ্লেন ফিলিপস, মার্ক চাপম্যান, জেমস নিশাম, মাইকেল ব্রেসওয়েল, অ্যাডাম মিলনে, ইশ সোধি, টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৯ অক্টোবর ২০২২

Back to top button