দক্ষিণ এশিয়া

‘পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও আলোচনা নয়, কাশ্মীরকে সন্ত্রাসমুক্ত করাই লক্ষ্য’, সাফ কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

নয়াদিল্লী, ০৫ অক্টোবর – জম্মু ও কাশ্মীর সংক্রান্ত বিষয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও রকম আলোচনায় বসবে না ভারত। বারামুলার জনসভা থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এছাড়াও জম্মু ও কাশ্মীরে শীঘ্রই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

শাহ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, অতি শীঘ্রই কাশ্মীর উপত্যকার সকল ঘাঁটি থেকে সন্ত্রাসবাদকে র্নিমূল করা হবে। তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদি সরকার সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দেয় না এবং তা নিশ্চিহ্ন করতে চায়। জম্মু ও কাশ্মীরকে দেশের সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ জায়গা বানাতে চাই আমরা।

কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় বসার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিরোধীরা। সেই প্রসঙ্গে শাহ বলেন, যারা ৭০ বছর ধরে রাজত্ব করেছে, তারা পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলতে বলে। আমরা কেন পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলব। আমরা কথা বলব না। আমরা বারামুলাবাসীর সঙ্গে কথা বলব। আমরা কাশ্মীরবাসীর সঙ্গে কথা বলব।

জনসভায় ভাষণে কংগ্রেস এবং মেহবুবা মুফতি (পিডিপি নেতা) ও ফারুক আবদুল্লার (ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা) সমালোচনা করেন শাহ। তার দাবি, স্বাধীনতার পর থেকে এই অঞ্চলে কোনও উন্নয়ন হয়নি। তার জন্য দায়ী আবদুল্লা-মুফতি এবং নেহরু-গান্ধীরা।

শাহের আরও বলেন, মেহবুবা মুফতি ও ফারুক আবদুল্লা ৪টি মে়ডিক্যাল কলেজ তৈরি করেছিলেন । ২০১৪ সালের পর থেকে আমরা ৯টি মেডিক্যাল কলেজ তৈরি করেছি। এক লক্ষ বাড়ি বানিয়েছি। জম্মু-কাশ্মীরের সব গ্রামে যাতে বিদ্যুৎ পৌঁছয়, তা নিশ্চিত করেছি আমরা। এমনকি পাক-অধিকৃত কাশ্মীরেও।

বর্তমানে তিন দিনের সফরে জম্মু-কাশ্মীরে রয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ । একের পর এক বৈঠক করার পাশাপাশি কাশ্মীরের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতির দিকে নজর রয়েছে শাহের। একইসঙ্গে সম্প্রতি কাশ্মীরে জনসভাগুলোতে একের পর এক প্রতিশ্রুতি দিতেও দেখা যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ০৫ অক্টোবর ২০২২

Back to top button