জাতীয়

হজের প্রাক-নিবন্ধনে ব্যাংক হিসাব নম্বর দেওয়া বাধ্যতামূলক

ঢাকা, ০৫ অক্টোবর – হজের প্রাক-নিবন্ধনে ব্যাংক হিসাব নম্বর দেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এজন্য জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হিজরি ১৪৪৪/২০২৩ সাল থেকে পবিত্র হজ পালনে ইচ্ছুক ব্যক্তি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় কার্যক্রম পরিচালনাকারী হজ এজেন্সি, হজ অফিস এবং প্রাক-নিবন্ধন কেন্দ্রসহ সংশ্লিষ্ট সবার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, হজের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন করার সময় সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীর নিজ নামে খোলা ব্যাংক হিসাব নম্বর, ব্যাংকের নাম, শাখার নাম ও রাউটিং নম্বর এবং নিজস্ব এনআইডি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা মোবাইল নম্বর প্রাক-নিবন্ধনের সময় অবশ্যই দিতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

আগামী বছরের (২০২৩ সাল) জুনের শেষ সপ্তাহে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘সৌদি সরকারের সঙ্গে আমাদের যতটুকু আনঅফিসিয়াল কথা হয়েছে, সেই অনুযায়ী তাদের বিষয়ে যতটুকু জেনেছি, এবার হয়তো পূর্ণ হজই হবে ইনশাআল্লাহ। গত বছর আমাদের যেটা হয়েছিল সেটা হয়তো নাও হতে পারে, এবার হয়তো রেশিও হিসেবে আমরা যতটুকু পাওয়ার ততটুকু পাবো।’

২০১৯ সালে বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৭ হাজার মানুষ হজ পালন করেন। ২০২০ সালের জন্য বাংলাদেশ এবং সৌদি আরবের মধ্যে হজ সংক্রান্ত যে চুক্তি হয়, সেখানে বাংলাদেশিদের হজযাত্রীর কোটা ১০ হাজার বাড়ানো হয়। ২০২০ সালে এক লাখ ৩৭ হাজার বাংলাদেশি হজে যেতে পারতেন। কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সৌদি আরবের নিষেধাজ্ঞায় বাংলাদেশ থেকে কেউ হজ পালন করতে পারেনি। ২০২১ সালেও বিদেশিদের জন্য হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

করোনা মহামারি কমে এলে চলতি বছর (২০২২) বিভিন্ন দেশ থেকে কোটা অর্ধেক করে হজ পালনের অনুমতি দেয় সৌদি আরব। এবার বাংলাদেশ থেকে ৬০ হাজার মুসলমান হজ পালন করে।

করোনা মহামারির কারণে এবার ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের হজ পালনের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা ছিল। আগামী হজে বয়সের এ বিধিনিষেধ থাকছে না বলেও জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ০৫ অক্টোবর ২০২২

Back to top button