ইউরোপ

এবার খেরসনের গুরুত্বপূর্ণ গ্রাম পুনর্দখলের দাবি ইউক্রেনের

কিয়েভ, ৫ অক্টোবর – গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের দেশ ইউক্রেনে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। যুদ্ধে ইউক্রেনের বেশ কিছু অঞ্চল দখলে নিয়েছে রাশিয়া। সম্প্রতি দেশটির ডোনেটস্ক, লুহানস্ক, জাপোরিঝঝিয়া ও খেরসন অঞ্চল ‘গণভোটের’ মাধ্যমে নিজ ভূখণ্ডের সঙ্গে একীভূত করে নিয়েছে রাশিয়া।

তবে দীর্ঘ সাত মাস পর যুদ্ধে ক্রমশ সাফল্যের মুখ দেখতে শুরু করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। পুতিনের সৈন্যদলকে রুখে দেশের দক্ষিণ প্রান্তে আরও অগ্রসর হয়ে একাধিক এলাকা পুনর্দখল করার দাবি করেছে ইউক্রেন।

এবার দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় খেরসনের একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রাম দখলদার রুশ সেনাদের হাত থেকে মুক্ত করার দাবি করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। এটি কৌশলগত দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ গ্রাম বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। এর মাধ্যমে রুশ সামরিক পশ্চাদপসরণ আরও এক ধাপ ত্বরান্বিত হল।
ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেছে, ৩৫তম মেরিন ব্রিগেড ‘ডেভিডিভ ব্রিড’ গ্রামে ইউক্রেনীয় পতাকা উত্তোলন করেছে। আশেপাশের আরও কয়েকটি গ্রাম পুনরুদ্ধারের পথে রয়েছে।

রুশ বাহিনী ইতোমধ্যেই ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে। তাদেরকে এখন দক্ষিণাঞ্চল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
আইএ/ ৫ অক্টোবর ২০২২

Back to top button