দক্ষিণ এশিয়া

উত্তরাখণ্ডের পর্বতশৃঙ্গে তুষারধসে মৃত্যু কয়েকজনের, আটকে ২৮, উদ্ধারে বায়ুসেনা

নয়াদিল্লী, ০৪ অক্টোবর – ভারতের উত্তরাখণ্ডে ‘দ্রৌপদী ডান্ডা-২’ পর্বতশৃঙ্গে মঙ্গলবার সকালে তুষারধসের ঘটনা ঘটে। এতে ২৯ জন প্রশিক্ষণার্থী পর্বতারোহী আটকা পড়েছিলেন। তাদের মধ্যে দেশটির বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারের মাধ্যমে আটজনকে উদ্ধার করা হলেও বাকিদের নিরাপদে আনার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে উত্তরাখণ্ড পুলিশ। পুলিশ আরও জানিয়েছে, অন্তত চার জনের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

উত্তরাখণ্ড পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, দুর্ঘটনার কবলে পড়া পর্বতারোহীর উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশীর পর্বতারোহণ প্রশিক্ষণকেন্দ্র ‘নেহরু ইনস্টিটিউট অফ মাউন্টেনিয়ারিং’ (নিম)-এর শিক্ষার্থী।

উত্তরাখণ্ডের পুলিশ প্রধান অশোক কুমার বলেছেন, মঙ্গলবারসকাল ৯টা নাগাদ প্রায় ১৬ হাজার ফুট উচ্চতার তুষারধসের খবর পাওয়া যায়। এর পরেই দ্রুত উদ্ধারের কাজ শুরু করেছে, সেনাবাহিনী, বিমান ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ এবং জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল (এনডিআরএফ)-এর উদ্ধারকারী বাহিনী।

তিনি বলেন, এ পর্যন্ত আট পর্বতারোহীকে উদ্ধার করে ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় একটি হেলিপ্যাডে নামিয়ে আনা হয়। তার পরে হেলিকপ্টারে তাদের দেহরাদূনে আনা হয়েছে। আটক অন্য পর্বতারোহীদের খোঁজ চলছে।

উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় টুইট করেছে, দ্রৌপদীর ডান্ডা-২ পর্বত শৃঙ্গে তুষারধসে আটকে পড়া প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্ধার করতে জেলা প্রশাসন, এনডিআরএফ, এসডিআরএফ, সেনাবাহিনী এবং আইটিবিপি কর্মীদের সাথে এনআইএম-এর দল দ্রুত ত্রাণ ও উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় আরও জানিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সাথে কথা বলেছেন এবং সেনাবাহিনীর সাহায্য চেয়েছেন।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ০৪ অক্টোবর ২০২২

Back to top button