জাতীয়

বিএনপির নেতৃত্বে সরকার পতনের আন্দোলন চান অলি

ঢাকা, ০৪ অক্টোবর – সরকার পতনের আন্দোলনে বিএনপির নেতৃত্ব চান অলি আহমেদ। সোমবার (৩ অক্টোবর) বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠকের পর ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) চেয়ারম্যান অলি আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। ডিজেল, পেট্রোল,অকটেনের দাম বৃদ্ধিতে সর্বত্র বিরূপ প্রভাব পড়েছে। মানুষ সুশাসন পাচ্ছে না, ন্যায়বিচার পাচ্ছে না। এসব থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে। এই নেতৃত্ব (বিএনপি) ছাড়া এখানে গণতন্ত্র ফিরে আসার কোনও সম্ভাবনা নাই।

অলি বলেন, বিএনপি ইতিমধ্যে অত্যন্ত স্পষ্টভাষায় বলেছে, এই সরকারের অধীনে কোনও নির্বাচনে অংশ নেবে না। অতীতে আমরা ভুল করেছি যার কারণে আজকে আমাদেরকে খেসারত দিতে হচ্ছে।

‘এবার আমরা সবাই সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এই সরকারের পদত্যাগ চাই, তাদের ক্ষমতা ছাড়তে হবে এবং সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে। নতুন সরকার আসবে, তারা প্রশাসনকে ঠিক করবে। মানুষ যখন প্রস্তুত হবে, প্রশাসন যখন প্রস্তুত হবে, জনগণ যখন ভোট দিতে পারবে তখন নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে ‘—বলেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের জন্য জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছি সেই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আজকে আমরা দেশের প্রবীণ জননেতা অলি সাহেবের নেতৃত্বাধীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির সঙ্গে দ্বিতীয় দফায় আলোচনা করেছি। এই দ্বিতীয় দফার আলোচনায় আমরা আন্দোলনের যে দাবিগুলো আছে তা নিয়ে কথা বলেছি। এই সরকারের পতনে যুগপৎ আন্দোলনে একমত হয়েছি। আমরা পরবর্তীতে অন্যান্য দলগুলোর সঙ্গে আলোচনার পরে আমরা দাবিগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরবো এবং সেটা নিয়ে আমরা জনগণের সামনে আন্দোলনের দ্বিতীয় ধাপে এগিয়ে যাবো।

বিএনপি মহাসচিব দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানকে নিয়ে রাতে মহাখালীর ডিওএইচএসে এলডিপির চেয়ারম্যান অলি আহমেদের বাসায় যান।

সংলাপে এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল আলম, নেয়ামূল বসির, আওরঙ্গজেব বেলাল ও সৈয়দ মাহবুব মোর্শেদ ছিলেন।

গত ১৬ জুন এলডিপির সাথে প্রথমবার আলোচনা করেন বিএনপি মহাসচিব। দ্বিতীয় দফায় কল্যাণ পার্টি, জাতীয় পার্টির (জাফর) সঙ্গে মতবিনিময় করেছে বিএনপি। এ নিয়ে তিনটি দলের সঙ্গে কথা বললো বিএনপি।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
আইএ/ ০৪ অক্টোবর ২০২২

Back to top button